দ্য পিপল ডেস্কঃ পরীক্ষায় সাদা খাতা জমা দিয়ে পুরো নম্বর পেলেন পরীক্ষার্থী। অবাক করা এমন ঘটনা ঘটেছে জাপানে।

জাপানের মিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের অধ্যাপক ক্লাসে শুধু পড়াতে ভালবাসেন তাই নয়, পাশাপাশি পড়ুয়াদের নতুন উদ্ভাবনী বিষয়ে উৎসাহ দিতেও ভালবাসেন তিনি।

একদিন এমন ভাবনা থেকেই ক্লাসে এসে তিনি পড়ুয়াদের বললেন, সৃজনশীল বিষয়ে কিছু তৈরি করতে।

সেই সঙ্গে জাদুঘরে বেড়াতে যাওয়ার অভিজ্ঞতা লিখতে বলেন।

প্রত্যেক পড়ুয়া নিজেদের মতো করে লিখেছেন। কিন্তু দেখা গেল পড়ুয়াদের মধ্যে একজন সাদা খাতা জমা দিলেন। পরে দেখা গেল ইমি নামের ওই পড়ুয়াই সব থেকে বেশি নম্বর পেয়্ছেন।

কিন্তু কীভাবে?  জানুন সেই রহস্য

জানা যায়, প্রাচীন জাপানে গোপন খবর আদানপ্রদান করার জন্য আবুরিদাশা নামে একটি পদ্ধতি ব্যবহার করা হতো।

যে পদ্ধতিতে বিশেষ উপায়ে তৈরি করা কালি গিয়ে চিঠি লেখা হতো। এবং সঠিক ব্যক্তি সঠিক উপায় অবলম্বন করলেই ওই চিঠি পড়তে পারতেন।

এই বিশেষ পদ্ধতিই ব্যবহার করেছিলেন জাপানের মিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া ইমি।

কি সেই পদ্ধতি?

সোয়াবিন গুঁড়ো করে ভিজিয়ে রেখে তার মধ্যে নানা রকম কেমিক্যাল মিশিয়ে বিশেষ কালি তৈরি করা হয়।

এই কালি দিয়ে খাতার পাতায় লেখা হলে তা শুকিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে লেখা অদৃশ্য হয়ে যায়। কিন্তু তা মুছে যায় না।

ওই লেখা পড়তে গেলে খাতার পৃষ্ঠায় গরম তাপ দিতে হবে। যত উত্তপ্ত হবে ততই স্পষ্ট হবে খাতায় লেখা শব্দ।

কিন্তু এই পদ্ধতি তো অধ্যাপক জানেন না, তাই ইমি খাতার পৃষ্ঠার নিচে ছোট করে নির্দেশিকা দিয়ে রেখেছিলেন, একে গরম করুন।

এই সুন্দর ও অভিনব ভাবনায় মুগ্ধ হন অধ্যাপক। আর সব থেকে বেশি নম্বর পেয়ে তাক লাগিয়ে দেন ইমি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here