The people tv digital desk: ক্রমেই কমছে শীতের দাপট। পৌষ সংক্রান্তির আগেই রাজ্য থেকে উধাও ঠাণ্ডার আমেজ। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ভ্রুকুটির জেরেই রাজ্য এই ‘হাওয়া বদল’।

Source: internet

হাওয়া অফিসের তরফে আগামী কয়েকদিন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বৃষ্টিরও পূর্বাভাস মিলেছে। তবে, দিন চারেক পর আকাশ পরিস্কার হতেই আবারও তাপমাত্রা কমে এবছর শীত তার তৃতীয় ইনিংস খেলতে শুরু করবে বলে আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস।

এই মুহূর্তে দেশে দু’টি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা অবস্থান করছে। একটি পশ্চিমীঝঞ্ঝা ক্রমশ পূর্বদিকে সরছে। এর প্রভাবে আজ সোমবার থেকেই দক্ষিণবঙ্গবাসী বৃষ্টিতে ভিজবে। বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূমে । আগামী তিনদিন বর্জ্রবিদ্যুৎসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা রয়েছে। মঙ্গলবার থেকে কলকাতা-সহ রাজ্যর বিভিন্ন জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস মিলেছে।

Source: internet

কোন কোন জেলায় বৃষ্টির সম্ভবনা

হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে উত্তরবঙ্গেও। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, উত্তরবঙ্গের কয়েকটি জেলায় শিলাবৃষ্টিও হতে পারে হতে পারে। এদিকে ভোর রাত থেকেই ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হবে কলকাতা সহ নদিয়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম এবং মুর্শিদাবাদ । অতি ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে যেতে পারে উত্তরবঙ্গের প্রায় সব জেলাগুলি।

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণে এক ধাক্কায় রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বেড়েছে তাপমাত্রার পারদ। কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে একপ্রকার উধাও শীত। গত তিনদিনে এক ধাক্কায় তাপমাত্রা প্রায় ৪-৫ ডিগ্রি বেড়েছে। আগামী ২৪ ঘন্টায় আরও শীত কমার সম্ভাবনা। তবে ১৪ জানুয়ারির পর আকাশ পরিস্কার হতেই আবারও শীত কিছুটা ঘুরে দাঁড়াতে পারে বলে হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস।