দ্য পিপল ডেস্কঃ বিপদে পড়লে ঈশ্বর বাঁচান, এ মানুষের বিশ্বাস। কিন্তু কখনও কখনও মানুষই হয়ে ওঠেন ভগবান, ঈশ্বরেরই প্রতিমূর্তি।

আমাদের WHATSAPP গ্রুপে যুক্ত হতে ক্লিক করুন: Whatsapp

ঠিক যেমনটা হয়েছে গুজরাটে, মরবি জেলায়। পৃথ্বীরাজ জাদেজা নামে গুজরাট পুলিশের এক কর্মীকে দেখা যায় প্রায় কোমর সমান জলে কাঁধে দুই কিশোরীকে নিয়ে হেঁটে আসছেন।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তোলা ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল। ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটিতে দেখা যায়, যতদূর চোখ যায় চারদিকে অথৈ জল। কেথাও বাড়িঘরের সামান্য চিহ্নমাত্র নেই। বহু দূরে উঁকি দিচ্ছে টাওয়ার।

কতদূর গেলে স্থলের খোঁজ পাওয়া যাবে তার কোনো হদিশ নেই। যে কোনো মুহূর্তে বিপদ আসতে পারে। পড়ে যেতে পারেন পুলিশ কর্মী নিজেও। তলিয়ে যেতে পারে পুলিশ কর্মী সহ দুই প্রাণ।

কিন্তু এসব উপেক্ষা করে কাঁধের উপর দুইজনকে বসিয়ে প্রায় দেড় কিলোমিটার পথ হেঁটেছেন পুলিশ কর্মী পৃথ্বীরাজ জাদেজা। পায়ের নিচে রাস্তা নাকি মাঠ কিছুই জানেন না।

নেট দুনিয়া কুর্ণিশ জানাচ্ছে ওই পুলিশ কর্মীকে। যেন ঈশ্বরের দূত হয়ে তিনি এসেছেন বন্যা দুর্গতদের উদ্ধার করতে।

উল্লেখ্য, দেশের ৭ রাজ্যে ভয়াবহ আকার নিয়েছে বন্যা পরিস্থিতি।  তার মধ্যে রয়েছে গুজরাট। টানা বৃষ্টিতে যেন সেই অবস্থা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। কিন্তু শত বাধা অতিক্রম করেও প্রাণ বাঁচাতে আসেন কেউ কেউ। যেমন এই পুলিশ কর্মী পৃথ্বীরাজ জাদেজা।