আঁখি রায়

রদবদল হতে পারে আপার প্রাইমারির শর্তাধীন মেধাতালিকায়। অন্তত স্কুল সার্ভিস কমিশন সূত্রে এমন খবরই মিলেছে। উতসবের মরশুম কাটলেই ফের নতুন করা মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। কমিশনে প্রচুর অভিযোগ জমা পড়েছিল। তার বেশ কিছু অভিযোগের সারবত্তা খুঁজে পেয়েছেন কমিশনের কর্তারা। সেই কারণেই রদবদল হতে চলেছে শর্তাধীন মেধা তালিকায়।

৪ঠা অক্টোবর হাইকোর্টের নির্দেশে প্রকাশ করা হয় আপার প্রাইমারির শর্তাধীন মেধাতালিকা। হাইকোর্টের নির্দেশেই ৫ই অক্টোবর থেকে ২৫শে অক্টোবর পর্যন্ত মেধাতালিকা সংক্রান্ত অভিযোগ জমা নিয়েছে স্কুল সার্ভিস কমিশন।

কমিশন সূত্রের খবর, হাজার দশেক অভিযোগ জমা পড়েছে তাদের দফতরে। এর মধ্যে ছশোর মতো অভিযোগ বৈধ। স্বাভাবিকভাবেই আপার প্রাইমারির শর্তাধীন মেধাতালিকায় রদবদল হতে চলেছে বলে কমিশন সূত্রের খবর।

স্কুল সার্ভিস কমিশনের এক আধিকারিক বলেন, হাজার দশেক অভিযোগ জমা পড়েছে। তার মধ্যে ছশোর মতো অভিযোগ বৈধ। তিনি বলেন, যে অভিযোগগুলোর সারবত্তা নেই, সেগুলো বাদ যাবে।

কমিশনের এই আধিকারিক বলেন, এখনও পর্যন্ত যা পেয়েছি, তা হল জিরো এরর। কোর্ট যেটা দেখতে বলেছে, সেটা হল বেশি নম্বর পেয়েছে, অথচ মেধাতালিকায় স্থান পায়নি, এমন কেউ আছে কিনা।

সেদিক থেকে আমাদের এখনও পর্যন্ত জিরো এরর। যদিও ওই আধিকারিক স্বীকার করে নেন, মেধাতালিকায় রদবদল হতে পারে। সেক্ষেত্রে কাট অফ পরিবর্তন হতে পারে।

আপার প্রাইমারির শর্তাধীন মেধা তালিকা নিয়ে অভিযোগ উঠেছে আগেও। তবে তা হালে পানি পায়নি। এবার অবশ্য হাইকোর্ট নির্দেশ দেওয়ায় ছুটির দিন সহ সপ্তাহের সমস্ত কাজের দিনগুলিতে লম্বা লাইন দিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন পরীক্ষার্থীরা।

তাঁদের অভিযোগ, বেশি নম্বর পেয়েও ঠাঁই হয়নি মেরিট লিস্টে। এছাড়াও আরও কয়েকটি অভিযোগও তুলেছেন তাঁরা। কমিশন দেখেছে, মেরিট লিস্টে অনিচ্ছাকৃত কিছু ভুল হয়েছে।

এই ভুলগুলোই সংশোধন করিয়ে ফের প্রকাশ করা হবে শর্তাধীন মেধা তালিকা। স্বাভাবিকভাবেই র‍্যাঙ্ক বদলে যাবে সেই তালিকায় থাকা ছাত্রছাত্রীদের। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here