দ্য পিপল ডেস্কঃ দশভুজা আরাধনার মাঝেই দ্বিভুজা রূপে পুজিত হন ত্রিপুরার আগরতলার দুর্গা বাড়ি মন্দিরের প্রতিমা। দেড়শ বছরেরও বেশি প্রাচীন আগরতলা এই দুর্গা মন্দির। রাজন্য আমল থেকে দুর্গাপুজো চলছে এই মন্দিরে।

মন্দিরের বিশেষত্ব, দেবী আপাতদৃষ্টিতে দ্বিভূজা। কিন্তু কাঠামোর পিছনে লুকিয়ে রয়েছে দেবীর বাকি আটটি হাত। কিন্তু এর কারণ কি?

কথিত রয়েছে, বহু বছর আগে রাজন্য আমলে সন্ধ্যা আরতির সময় এক রাণী দেবী দশভুজা রূপ দেখে মূর্ছা যান। এরপর দেবীর স্বপ্নাদেশে সাধারণ মানুষের মতো দ্বিভূজা রূপে পুজিত হওয়ার নির্দেশ দেন দেবী নিজেই। বাকি ৮ টি হাত কাঠামোর পিছনে লুক্কায়িত রয়েছে কাঠামোর পিছনে।

সেই রীতি মেনেই এই মন্দিরে পুজিত হন দেবী। রাজধানী আগরতলা সহ রাজ্য এবং বাংলাদেশ থেকেও পুণ্যার্থীরা ভিড় জমায় দুর্গাপূজার দিনগুলিতে দেবীর এই রূপ দেখতে।

আগে রাজকোষের অর্থ এই মন্দিরের পূজা পার্বণ অনুষ্ঠিত হত। কিন্তু বর্তমানে ত্রিপুরা সরকারের কোষাগার থেকে মন্দিরের সকল খরচ বহন করা হয়। তাই দুর্গা মন্দিরের সাইনবোর্ডে লেখা রয়েছে ত্রিপুরা সরকার।

ভারতের স্বাধীনতার পর ত্রিপুরা যখন ভারতের সঙ্গে সংযুক্ত হয় তখন নতুন নিয়ম অনুযায়ী সমস্ত খরচের দায়িত্ব বর্তায় সরকারের ওপর। সেই নিয়ম মেনেই পুজিত হন এই মন্দিরের দুর্গা প্রতিমা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here