দ্য পিপল ডেস্কঃ প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরে গিয়েছেন ত্রিপুরার যুবরাজ প্রদ্যুত কিশোর দেববর্মন। খালি পড়ে রয়েছে ত্রিপুরা কংগ্রেসের সিংহাসন। তাই সুবল ভৌমিককে সামনে রেখে আন্দোলন বাড়াতে চাইছে ত্রিপুরার যুব কংগ্রেস। তবে নতুন করে দায়িত্ববান নেতা হিসাবে যাঁদের নাম সামনে আসছে তাঁদের মধ্যে অন্যতম অরিন্দম ভট্টাচার্য।

কিছুদিন আগেই টেটের প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে উত্তপ্ত হয়েছে গোটা ত্রিপুরা। অভিযোগ ওঠে শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ এবং দু’জন শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

অভিযোগ, টেট-১ এবং টেট-২ পরীক্ষার জন্য মাথা পিছু ৪ লক্ষ টাকার দাবী করেন তাঁরা। এই অভিযোগে ধরা পড়ার পরেই ওই ব্যাক্তিদের পুলিশের হাতে তুলে দেয় অন্যান্য পরিক্ষার্থীরা।

ঘটনায় প্রতিবাদে মুখর হয়েছে ত্রিপুরা এনএসইউআই। প্রতিবাদের অন্যতম মুখ অরিন্দম ভট্টাচার্য। রাতভর পশ্চিম ত্রিপুরার জেলা শাসকের দফতরে বিক্ষোভ দেখায় তাঁরা।

এ বিষয়ে এনএসইউআই নেতা অরিন্দম ভট্টাচার্যের সঙ্গে কথা বলে দ্য পিপল টিভি। তিনি জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ১৫১ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাই অনায়াসে মুক্তি পেয়েছে তাঁরা।

ভাইরাল হওয়া অডিও ক্লিপ যাঁদের হাতে গিয়েছিল তার মাধ্যমেই ওই দুই অভিযুক্তদের ধরা হয়েছিল। কিন্তু পরীক্ষার প্রশ্নপত্র যাদের হাতে গিয়েছে তাঁদের কারোর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগ আরও জোরালো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

টেট-১ এর পরীক্ষায় প্রায় ৩০ শতাংশ প্রশ্ন যারা বিএড পাশ করেছে ছিল তাঁদের জন্য। যারা বিএড করেনি তাঁদের জন্য সেই প্রশ্ন নয়। এমনটাই অভিযোগ তুলেছেন যুব কংগ্রেস নেতা। শিক্ষা দফতরের কাছে এবিষয়ে নোটিশ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইতিমধ্যেই লোকসভা নির্বাচনে ত্রিপুরায় কংগ্রেস ফলাফল অনেকটাই বদলে গিয়েছে। সারা ত্রিপুরায় কংগ্রেসের ফলাফল আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনকি ১৮ মাসে বিপ্লব দেবের সরকারের প্রতিবাদে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁদের।

যার অন্যতম মুখ অরিন্দম ভট্টাচার্য। তাই তাঁর মত যুব নেতাকেই সামনে রেখে সংগঠন বাড়াতে চাইছে কংগ্রেস।

তাঁদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আগামী কিছুদিনের মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়ে গেলেই বিজেপির দুর্গ ভাঙার পরিকল্পনা তৈরি করবে তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here