এই শহর থেকে আরও অনেক দূরে

0
101

শুভ মন্ডল

বৃষ্টি শেষে রামধনু আমরা কম বেশি সবাই দেখেছি। বৃষ্টির মাটি ভেজা গন্ধ তুমুল বৃষ্টির আঙ্কশিক মেঘ মুক্ত আকাশ। আর তারই ফাকে ফাকে রামধনুর সাত রঙের ছটা।

স্বর্গীয় দৃশ্য বললে খুব একটা ভুল হবে না। কিন্তু সেই রামধুনু আর মেঘের খেলার দৃশ্য ক্ষনিকের জন্য চোখে ধরা দেয়।

কিন্তু যদি এমন কোনো জায়গা থাকত যেখানে রামধনু দেখা যেত দিবারাত্রি তবে কেমন হত ? ঠিক এমনই একটা পাহাড়ের উপত্যকায় সন্ধান দেব আজকে।

ঠিকানা রেনবো ভ্যালি :

একটি পাহাড়ি উপত্যকায় লোকচক্ষুর আড়ালেই। নির্জনতায় মোড়া পরিবেশে লুকিয়ে আছে এমনই এক জলপ্রপাত।

মেঘেরা সরে গেলে রোদ উঠলেই সেখানে দেখা যায় রামধনু। জলপ্রোপাতটির স্থানীয় নাম ‘ইন্দ্রানী ছাগো’ বা ‘ইন্দ্রানী ফলস’।

তবে এই প্রোপাতটি ‘রেনবো ফলস’ নামে বেশি জনপ্রিয়। আর দার্জিলিং হিমালয়ের কোলে এই শান্ত, স্নিগ্ধ ও সৌন্দর্য্যময় পাহাড়ি উপত্যকাটির নাম ‘কালিজ ভ্যালি’ বা ‘রেনবো ভ্যালি’।

ঠিকানা রেনবো ভ্যালি ,থাকবেন কোথায়?

সবুজে মোড়া সুন্দর এই উপত্যকায় থাকার জন্য আছে চা বাগানের ঢালে এক ভীষণ সুন্দর একটি রিসর্ট।

যার নাম ‘রেনবো ভ্যালি রিসর্ট’। ঠিক যেন সবুজ ক্যানভাসে নিখুঁত করে আঁকা একটা ছবি। রিসর্টের পাশেই ‘কালিজ ভ্যালি চা বাগান’।

একটু উপরে ‘আপার কালিজ ভ্যালি’ গ্রাম। এখানে অবসর যাপনে এসে বিশুদ্ধ প্রকৃতির মাঝে সারাদিন ধরে চা বাগান, পাহাড় ও ভ্যালির অসাধারণ দৃশ্য দেখে ও হরেক রকম পাখির ডাক শুনে মন ভরে যায়।

প্রাকৃতিক পরিবেশ : সূর্যের গ্রাম

রাস্তার একধারে শর্টগেজ রেল লাইন দিয়ে টয় ট্রেন হুইসেল বাজিয়ে নিজের গন্তব্যে চলতে থাকে।

কয়েকদিন আগেই পাহাড়ে ভোট মেঘ কেটেছে। পাহড়ের উপরে দিকে দেওদার গাছের সারি। ব্রিটিশ আমলের একটি রোপওয়ের দেখাও পাওয়া যাবে এই রামধনুর দেশে।

নিচের চা বাগান থেকে উপরের হিল কার্ট রোডে চা পাতা এবং অনান্য সামগ্রী তোলার জন্য বানানো হয়েছিল এই রোপওয়ে।

রামধনুর দেশে পৌঁছানর আগে ‘আপার কালিজ ভ্যালি’ নামক একটি সুন্দর গ্রাম দেখতে পাবে। স্থানীয়রা একে সূর্যের গ্রাম বলে।

যাতায়াত :

নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনে নেমে শেয়ার অটো শিলিগুড়ির জিপ স্ট্যান্ড। সেখান থেকে দার্জিলিং গামী শেয়ার জিপে ২.৫ ঘন্টায় রংবুল ফাটক (Rongbull Fatak)।

দূরত্ব ৫৫ কিমি। রংবুল ফাটক থেকে গাড়িতে ৫ কিমি উৎরাই রাস্তায় কালিজ ভ্যালির রেনবো রিসর্ট।

ভাড়া ৫০০ টাকা।

নিউ জলপাইগুড়ি থেকে কালিজ ভ্যালির জন্যও সরাসরি গাড়ি পাওয়া যাবে। কিন্তু তার ভারা বেশি হবে তা বলা বাহুল্য।

কালিজ ভ্যালি থেকে বেরিয়ে নেওয়া যায় টাইগার হিল। একই সাথে ঘুরে নেওয়া যায় দার্জিলিং, মিরিক, বা চটকপুর – বাগোরা।

দার্জিলিং থেকে কালিজ ভ্যালির দূরত্ব ১৭ কিমি।

আরও পড়ুন

থাকা-খাওয়াঃ

রংবুলের কালিজ ভ্যালিতে একমাত্র থাকা-খাওয়ার জায়গা ‘রেনবো ভ্যালি রিসর্ট’(Rainbow Valley Resort, Rongbull)।

কটেজের ভাড়া ১৮০০ টাকা মাত্র ও ২২০০ টাকা মাত্র। ডুপ্লেক্স ফ্যামিলি কটেজ ব্যবস্থাও আছে। ভাড়া ৩৪০০ টাকা মাত্র।

খাওয়া প্যাকেজ সিস্টেমে জনপ্রতি ৬০০ টাকা মাত্র প্রতিদিন। এছাড়া ‘আলা-আ-কার্টে’ -এর ব্যবস্থাও রয়েছে। বারবিকিউ চিকেন – ফুল ৭৫০ টাকা, হাফ – ৪০০ টাকা।

যোগাযোগঃ 9832616970/ 7679793364

ইতিমধ্যেই বঙ্গের আনাচে কানাচে বর্ষা হানা দিয়েছে। আর দেরি না করে ব্যাগ গুছিয়ে নেওয়াটাই লাভ জনক। কারন রামধনুর দেশে রঙের খেলা দেখার জন্য এটাই হল আদর্শ সময়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here