The people tv digital desk: জাতীয় রাজনীতিতে কংগ্রেসের সঙ্গে নিজেদের দূরত্ব বাড়িয়েই চলেছে তৃণমূল কংগ্রেসের। এবার কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ‘দ্বিচারিতার’ অভিযোগ আনল তৃণমূলের মুখপত্র জাগো বাংলায়।

চণ্ডীগড় পুরনিগমের নির্বাচনে যেভাবে বিজেপির জন্য ভোটের ময়দানে সরে দাঁড়িয়েছে কংগ্রেস, তারই তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে তৃণমূল মুখপত্রের সম্পাদকীয় বিভাগে।

এমনকী কংগ্রেসকে বিজেপির ‘দোসর’ বলেও আক্রমণ করা হয়েছে। এদিন মুখপত্রের সম্পাদকীয়তে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে লেখা হয়, “যতদিন যাচ্ছে তত কংগ্রেসের চরিত্র প্রকাশ্যে আসছে। কংগ্রেস নাকি ধর্ম নিয়ে ব্যবসা করা বিজেপির সঙ্গে হাত মেলায় না।

কিন্তু কী হল হরিয়ানায়? চণ্ডীগড় পুরনিগমে সদ্য নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচনের ফল এইরকম- আপ-১৪, বিজেপি-১২, কংগ্রেস-৮, অকালি দল-১। সব মিলিয়ে ৩৫ আসনের পুরসভা। আপের মেয়র পদে বসার সম্ভাবনা প্রবল ছিল। কিন্তু কোন ক্ষমতাবলে বিজেপি মেয়রের পদ দখল করে নিল, তা জানলে অবাক হতে হয়।”

এদিন জাগো বাংলার সম্পাদকীয়তে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কটাক্ষের হেনে লেখা হয়েছে, “বিজেপির এটাই চরিত্র। এখন তার দোসর কংগ্রেস।” এর আগেও একাধিক রাজনৈতিক ইস্যুতে জাতীয় স্তরে কংগ্রেসের ভূমিকা নিয়ে বারবার সরব হয়েছে তৃণমূলের মুখপত্র।

কখনও কংগ্রেসকে আন্দোলন বিমুখ, টুইট-সর্বস্ব আবার কখনও দল ডিপ ফ্রিজে চলে গিয়েছে বলে আক্রমণ শানিয়েছে জাগো বাংলা। আর সেই সঙ্গে জাতীয় স্তরে জনপ্রিয়তা লাভের লক্ষ্যে বারংবার মোদি তথা বিজেপির বিকল্প মুখ হিসেবে কংগ্রেসের পরিবর্তে তুলে ধরা হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম। তাই এবার কংগ্রেসকে বিজেপিরই অন্যতম দোসর বলতে রেয়াত করা হল না তৃণমূল মুখপত্রের সম্পাদকীয়তে।