কোন কোন আসন পাচ্ছে বিজেপি? কী বলছে দলীয় রিপোর্ট?

0
509

।।গৌতম ভট্টাচার্য।।

রাত পোহালেই সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণা। বিজেপি এবং তৃণমূল রাজ্যের দুই প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী দলই চুলচেরা বিশ্লেষণে ব্যস্ত।তৃণমূলের দাবি, রাজ্যের ৪২টি আসনের মধ্যে তাদের হাতে যাবে ৩৬ থেকে ৩৮টি কেন্দ্রের রাশ। যদিও বিজেপির দাবি, তৃণমূলের আসন সংখ্যা এবার কমবে। তৃণমূলের অবস্থা এমনই হবে, যাতে ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যের কুর্সিতে বসবে বিজেপি।

কোন তথ্যের ভিত্তিতে এই দাবি করছে বিজেপি?  দলীয় সূত্রের খবর, বিজেপির ভোট ম্যানেজাররা ভোটের আগে-পরে একাধিক সমীক্ষা করেছেন। সেই সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে রাজ্যের অন্তত উনিশটি কেন্দ্রে এবার জয়ী হবেন বিজেপি প্রার্থীরা। রীতিমতো অঙ্ক কষে, তাঁরা বলে দিচ্ছেন এই এই কেন্দ্রের রশি যাবে পদ্মশিবিরের হাতে। বিজেপির ভোট ম্যানেজারদের দাবি, হাওড়া, দমদম, বারাসত, বনগাঁ, রানাঘাট, কৃষ্ণনগর, কলকাতা উত্তর, আলিপুরদুয়ার, মুর্শিদাবাদ, মেদিনীপুর, কোচবিহার, দার্জিলিং, আসানসোল, মথুরাপুর, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বিষ্ণুপুর এবং হুগলিতে জয়ী হবেন গেরুয়া শিবিরের প্রার্থীরা। এই কেন্দ্রগুলির কোথাও প্রার্থীর ব্যক্তিগত ক্যারিশমা, কোথাও সংগঠন, কোথাও তৃণমূলের প্রতি তীব্র বিদ্বেষ, কোথাও বা তৃণমূল প্রার্থী পছন্দ না হওয়া, কোথাও বা স্রেফ তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে জয়ী হতে চলেছেন বিজেপি প্রার্থীরা। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, কেন্দ্রে এবার সরকার গড়ছেন তাঁরাই। বিজেপির এক শীর্ষ নেতা বলেন, রাজ্যের ১৯টি আসনে জিতছিই। আরও দু-একটি হলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। ২০২১ সালে রাজ্যে সরকার গড়ছি আমরাই।

বিজেপির এই দাবি খারিজ করে দিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁদের দাবি, সিপিএম-বিজেপির ভোট কাটাকুটির খেলায় বেশ কিছু আসনে এবার জিতবে তৃণমূলই। নিজেদের গড় তো রয়েইছে। তৃণমূলের এক শীর্ষ নেতা বলেন, ২০২১ এ রাজ্যে সরকার গড়ার স্বপ্নে ওরা বুঁদ হয়ে থাকুক। এই নির্বাচনে আমরা ৩৬ থেকে ৩৮টি আসন পাব। হিসেব দিয়ে তিনি বুঝিয়েও দিচ্ছেন। তিনি বলেন, একটি লোকসভা কেন্দ্রের অধীনে রয়েছে সাতটি বিধানসভা। এর প্রতিটিতেই আমাদের লড়তে হবে হয় বিজেপির সঙ্গে নয়তো সিপিএমের সঙ্গে। তাঁর দাবি, এতে আখেরে আমাদেরই লাভ। ভোট কাটাকুটির জেরে জয়ী হবেন আমাদের প্রার্থীরা।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, এই নির্বাচনে বামেদের একটা বিরাট অংশের ভোট পড়ার সম্ভাবনা পদ্মের ঝুলিতে। তাই রাত জেগে যে আঁক তৃণমূল কষছে, তা ঠিক হওয়ার সম্ভাবনা অত্যন্ত ক্ষীণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here