পাহাড়ে মাটি পেতে মোর্চার প্রার্থীকেই সমর্থন তৃণমূলের!

0
123

দ্য পিপল ডেস্ক- পাহাড়ের পাকদণ্ডীতেই ঘাসফুল ফোটাতে মরিয়া তৃণমূল। সেই কারণেই শৈল শহরের বিধানসভার উপনির্বাচনে মোর্চার প্রার্থীকেই সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। তৃণমূল সূত্রের খবর, এভাবেই পাহাড়বাসীর আস্থা ফিরিয়ে এনে পাহাড়ে পায়ের নীচের জমি শক্ত করবে ঘাসফুল শিবির।

 মোর্চার প্রার্থীকেই 1
Image Source : sikkimexpress

দার্জিলিং বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচন ১৯ মে।এই কেন্দ্রের বিধায়ক অমর সিং রাই লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। মোর্চার এই সদস্য লড়ছেন তৃণমূলের প্রতীকে। তিনি পদত্যাগ করায় আসনটি শূন্য হয়ে পড়ে। প্রয়োজন হয়ে পড়ে উপনির্বাচনের।

পাহাড়ে অশান্তির কারণে পাহাড় ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছেন মোর্চার প্রাক্তন কর্তা বিমল গুরুং। তাঁর সঙ্গী রোশন গিরিও পাহাড় ছেড়েছেন। গুরুংয়ের বদলে মোর্চার রাশ হাতে নিয়েছেন বিনয় তামাং। তিনিই বর্তমানে মোর্চার মাথা।

মোর্চার প্রার্থীকেই সমর্থন :

বিনয়ের সঙ্গে তৃণমূল নেত্রীর সম্পর্ক খুব ভালো। এই বিনয়কেই উপনির্বাচনে প্রার্থী করছে মোর্চা। তাঁকে সমর্থন করবে তৃণমূল। অমর তৃণমূলের টিকিটে লড়ছেন, আর বিনয় লড়বেন মোর্চার প্রতীকেই। ২৬ তারিখে মনোনয়নপত্র দাখিল করবেন বিনয়। তার আগেই পদত্যাগ করবেন জিটিএ চেয়ারম্যানের পদ থেকে।

বিনয়কে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মোর্চা নেতারাই। গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তথা মহিলা মোর্চার সভানেত্রী শিরিং দাহাল বলেন, বিনয় তামাংই হচ্ছেন আমাদের প্রার্থী। রাজ্য সরকারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পাহাড়ে উন্নয়ন করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য।

সেই কাজ করতে পারবেন মোর্চার সভাপতি বিনয় তামাংই।তাই তাঁকে প্রার্থী করা হয়েছে। মোর্চার সমস্ত শাখা নেতৃত্ব ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যরা আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, পাহাড়বাসীর সিংহভাগেরই জমির নথি নেই। জমির পাট্টা, কর্মসংস্থান সহ নানা ইস্যুকে সামনে রেখেই প্রচারে নামবেন তাঁরা।

শিরিংয়ের অভিযোগ, গুরুং, রোশন গিরি এবং জিএনএলএফ পাহাড়ের বাসিন্দাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। এনআরসি লাগু করে তাঁদের পাহাড় থেকে উতখাত করার ষড়যন্ত্রও করছে গুরুংরা।

এদিকে, বিনয়ের প্রার্থী হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তেই খুশির হাওয়া পাহাড়ে। বিনয় জয়ী হলে তাঁকে পাহাড় সংক্রান্ত মন্ত্রীপদ দেওয়ার দাবিও জানিয়েছেন পাহাড়ের বাসিন্দারা।

আসন্ন উপনির্বাচনে কংগ্রেস এবং সিপিএমের তরফে এখনও কোনও প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়নি। তবে হরকাবাহাদুর ছেত্রীর জন আন্দোলন পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অমর লামা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে সূত্রের খবর।

জিএনএলএফের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অজয় এডওয়ার্ড প্রার্থী হতে পারেন। গুরুং পন্থী মোর্চা এবং বিজেপি তাঁকেই সমর্থন করবে বলেই দাবি সূত্রের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here