‘মিম’ পোস্টে অভিযুক্ত বিজেপি নেত্রীর জামিন

0
43

দ্য পিপল ডেস্কঃ মুখ্যমন্ত্রীর বিকৃত ছবি সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় হাওড়ার যুব মোর্চার নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মাকে। মঙ্গলবার বিশেষ শর্তসাপেক্ষে প্রিয়াঙ্কার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল আদালত।

মঙ্গলবার শুনানির পর প্রিয়াঙ্কাকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে বলে জানায় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। শুনানির পর বিচারপতিরা জানান, বাকস্বাধীনতার অধিকারে অন্যের অধিকার লঙ্ঘিত হলে সেকাহ্নেই ইতি টানতে হয়।

বুধবার সকালে এক সাংবাদিক সম্মেলনে প্রিয়াঙ্কা জানান, “জামিনের মঞ্জুর হওয়া সত্ত্বেও দীর্ঘ ১৮ ঘণ্টা আমায় আটকে রাখা হয়। আমার সঙ্গে আমার পরিবারের লোকজন এবং আইনজীবীর সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। তাঁরা আমায় ক্ষমা চাইতে বাধ্য করাচ্ছিল।”

প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে মেট গালার র‍্যাম্পে নিজের অভিনব সাজের জন্য ট্রোলিংয়ের শিকার হন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এরপরেই প্রিয়াঙ্কার চোপড়ার সেই মুখের উপর ফোটোশপের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ বসিয়ে ছবিটি বিকৃত করেন হাওড়া বিজেপির যুব মোর্চার নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মা।

ঘটনার পর ১৪ দিন জেল হেফাজতে থাকতে হয়েছিল ছাব্বিশ বছরের বিজেপি নেত্রীকে। প্রিয়াঙ্কার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০০ (মানহানি), ৬৬এ (আপত্তিকর মেসেজ) ও জামিন অযোগ্য ধারা ৬৭ এ-তে মামলা দায়ের করা হয়। গ্রেফতারের পরেই এলাকায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপির যুব মোর্চার কর্মীরা। পরিবারের তরফে অভিযোগ ওঠে রাজনৈতিকভাবে ফাঁসানো হচ্ছে প্রিয়াঙ্কাকে।

মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি চলাকালীন বিকৃত ছবিটিকে মিম বলে দাবী করেন প্রিয়াঙ্কার আইনজীবী নীরজ কিষাণ কউল। তিনি বলেন, কোনও মিম পোস্ট করার জন্য যদি ক্ষমা চাইতে হয়, তবে প্রত্যেক নাগরিকের ক্ষমা চাওয়া দরকার। সেইসঙ্গে ছবি বিকৃত করা হয়নি বলেও দাবী তোলেন তিনি।

এদিনের শুনানির পর প্রিয়াঙ্কার জামিন মঞ্জুর করে আদালত। পরিবর্তে তাকে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে নেওয়ার কথাও জানানো হয়।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here