গ্রেফতারিতে ভয় পাই নাঃ মমতা

0
104

দ্য পিপল ডেস্কঃ সোমবার অমিত শাহের রোড শো কে ঘিরে অগ্নিগর্ভ কলেজ স্ট্রিট চত্বর। তারপরেই পাল্টে দেওয়া হল রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্যকে। একই সঙ্গে কমিয়ে দেওয়া হল নির্বাচনী প্রচারের সময়। স্বাধীনতার পর এই প্রথমবার লাগু করা হল ৩২৪ ধারা। সপ্তম দফা নির্বাচনের আগে এই ঘটনা রাজনীতির উত্তাপ আরও বাড়িয়ে তুলেছে। এবার নির্বাচন কমিশনকে একহাত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিনের জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন কমিশনকে নিয়ন্ত্রণ করছে কেন্দ্রের সরকার । এর আগে নির্বাচনী প্রচারে একে অপরের দিকে অভিযোগ তুলেছেন মোদী-মমতা । মথুরাপুরে শেষ দফার প্রচারে খুন হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করলেন তিনি । সেইসঙ্গে তাকে গ্রেফতার করা হলেও সেই ভয় তিনি পাচ্ছেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

মুথুরাপুরের জনসভা থেকে বিজেপি সরকারের দিকে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কোনও ভয় দেখিয়ে তাকে যে আটকানো যাবে না এমনটাই স্পষ্ট বার্তা দিলেন তৃণমূল নেত্রী। এর আগে রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারে এসে সারদা এবং নারদা মামলাকে ঘিরে তৃণমূলের দিকে নিশানা করেন মোদী-অমিত শাহ। এদিন তাঁর পাল্টা জবাব দিলেন দলনেত্রী। গ্রামে গ্রামে বিজেপি টাকা বিলিয়ে বেড়াচ্ছে এমনটাই অভিযোগ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিনের সভা থেকে ‘বঙ্গ মহিলা বাহিনী’ তৈরির ডাক দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মানুষের পাহারাদার হবে এই বাহিনী এমনটাই জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরাই কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলি, বন্দুক কেড়ে নেবে বলে জানান তিনি। সেইসঙ্গে বিজেপির ষড়যন্ত্র রুখতে এই বাহিনীকে গ্রামে পাহারা দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

একদিকে মুখ্যমন্ত্রী বিজেপি এবং নির্বাচন কমিশন একসঙ্গে কাজ করছে এমনটাই অভিযোগ তুলছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। অন্যদিকে গত ছয় দফা নির্বাচনের পর নির্বাচনের কমিশনের কাছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোলা একাধিক অভিযোগ ওপর ভিত্তি করেই মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রসচিব অত্রি ভট্টাচার্যকে সরিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশন।

সেইসঙ্গে সরিয়ে দেওয়া হল এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারকেও। পাশাপাশি ছয় দফা নির্বাচনের পর রাজ্যের সাধারণ পর্যবেক্ষক অজয় ভি নায়েক এবং পুলিস পর্যবেক্ষক বিবেক দুবের দেওয়া রিপোর্টের পরেই এই সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here