দ্য পিপল ডেস্কঃ ভাই এরপর এবার দাদা । প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভের পর এবার হৃদযন্ত্রের সমস্যায় তাঁর দাদা স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের।

সৌরভের পরিবার সূত্রে খবর, স্নেহাশীষর গঙ্গোপাধ্যায়ের হৃদযন্ত্রের সমস্যাটা যথেষ্ট বেশি রযেছে ।

এমনকি ব্লকেজও রয়েছে হৃদযন্ত্রে। ডাক্তারি পরামর্শ মেনে সমস্যা সমাধানে তাই দ্রুত চিকিৎসা করাতে চলেছেন সৌরভের দাদা স্নেহাশীষ।

২২ জানুয়ারি উডল্যান্ডস হাসপাতালেই স্নেহাশিসের হৃদযন্ত্রে স্টেইন বসবে বলে জানা গিয়েছে।

হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে সৌরভ পরিবারের সমস্ত সদস্যদের শারীরিক পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন।

সৌরভের পরামর্শ মেনে শরীরের সব রকম পরীক্ষা করেন তিনি।

তখনই স্নেহাশীষ এর হৃদযন্ত্র ব্লকেজ ধরা পড়ে।

প্রসঙ্গত কয়েকদিন আগেই সকালেই বাড়িতে জিম করার সময় হার্ট অ্যাটাক হয়ে ছিল সৌরভের।

হাসপাতালে পরীক্ষা নিরীক্ষার পর সৌরভের তিনটে ব্লকেজ ধারা পরে।

এনজিওগ্রাম করার পর পড়ে এনজিওপ্লাস্ট করে একটি ব্লকেজ ঠিক করা হয়। বসানো হয় একটি স্টেইন।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেটির পর্যবেক্ষণে থাকার পর ৭ জানুয়ারি হাসপাতাল থেকে ছুটি পেয়ে বাড়ি ফেরেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট।

বাড়িতে ফিরলেও সর্বক্ষণ একজন চিকিৎসক তাকে পর্যবেক্ষণ করছেন।

সৌরভের পরিবার সূত্রে খবর এমনি তো সুস্থই আছেন মহারাজ।

ডাক্তারদের পরামর্শ মেনে খাওয়া-দাওয়া করছেন।

বাড়িতে বসেই বিসিসিআই সংক্রান্ত বেশ কিছু কাজ সারছেন সৌরভ।

তবে এর পাশাপাশি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ওপর চলছে পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে তাঁর দাদার শরীরেও যে ব্লক রয়েছে তা ধরা পড়েছে ।

এবার খুব শিঘ্রই সেই সমস্যার সমাধান করতে চলেছে উডল্যান্ড হাসপাতাল।

খুব শীঘ্রই সেই ব্লকেজ সরানো হবে স্নেহাশীষ গঙ্গোপাধ্যায়ের এর।

পাশাপাশি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ক্রমাগত শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে । শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা থেকে বাদ পড়েনি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও।