দ্য পিপল ডেস্কঃ যৌনজীবন সুখের হবে তখনই, যখন নারী এবং পুরুষ দুজনেই হবেন সেক্সি। একমাত্র সেক্সি নারী-পুরুষই ঝড় তুলতে পারেন বিছানায়। এঁরা রোমান্টিকও হন। আর কে না জানে রোমান্টিক হলে মন হয় চড়ুই পাখি।

আমাদের WHATSAPP গ্রুপে যুক্ত হতে ক্লিক করুন: Whatsapp

তবে কে সেক্সি তা বুঝবেন কীভাবে? কারও কারও মতে, যাঁরা শরীর প্রদর্শন করেন, তাঁরাই সেক্সি। আসলে তা নয়। ধরা যাক, কোনও মেয়ে এমন পোশাক পরল যে তাঁর স্তনের বেশ কিছুটা অংশ দেখা গেল, স্পষ্ট হল বক্ষবিভাজিকা, তাঁকেও সেক্সি বলা যাবে না। ছেঁড়াফাটা জিনস পরে যাঁরা থাই প্রদর্শন করেন, তাঁরাও সেক্সি নন। সেক্সি বলে প্রদর্শনের চেষ্টা করেন মাত্র। এই সব মেয়েদের সঙ্গে রতিক্রিয়ায় মাতলে আদতে হয় কেবল বড়দের খেলা, অন্য কিচ্ছুটি নয়। কারণ, এঁরা সেক্সিই নন। কোনও ছেলে যদি রোমশ বুক প্রদর্শন করেন কিংবা বলিষ্ঠ বাহু, তাঁকে সেক্সি বলা যাবে না।

তাহলে কীভাবে বুঝব কে সেক্সি আর কে নন?  এর উত্তর সহজ। ফেসবুক-হোয়াটস অ্যাপ-ইস্টাগ্রামে কে কতটা বেশি স্মাইলি আর ইমোজি আইকন ব্যবহার করেন, তা দেখেই বোঝা যাবে তিনি কতটা সেক্সি!সাম্প্রতিক এক গবেষণায়ই উঠে এসেছে এই তথ্য। জানা গিয়েছে, যিনি দিনভর যত বেশি স্মাইলি আর ইমোজি আইকন ব্যবহার করেন, তাঁর মাথায় ততই ঘুরঘুর করতে থাকে সেক্স-ভাবনা।

সম্প্রতি কে সেক্সি আর কে নন, তা জানতে একটি সমীক্ষা করেছিল  মার্কিন একটি সংস্থা। সেই সমীক্ষায়ই জানা গিয়েছে, শুধু সেক্স নিয়ে ভাবনাই নয়, যাঁরা ইমোজি-প্রেমী, তাঁরা ডেটিংও ভালোবাসেন বেশি বেশি। বিয়ে করার ব্যাপারেও এঁদের ঝোঁক প্রবল।

সেক্স-পোকা মাথায় কিলবিল করলেই এঁরা বেশি বেশি করে ইমোজি ব্যবহার করেন বলে সমীক্ষকদের দাবি। যাঁরা তুলনামূলকভাবে কম সেক্সি, তাঁরা ইমোজি কিংবা স্মাইলি ব্যবহার করেন অনেক কম।

তবে শুধু সেক্সি দেখলেই হবে না, সমীক্ষকদের মতে, দাম্পত্য সম্পর্ক ধরে রাখতে রতিক্রীড়ায় পারদর্শীও হতে হবে। শরীরের কোন অঙ্গ নিয়ে কীভাবে খেলতে হয়, তাও জানতে হবে। স্তন নিয়ে যেভাবে খেলা করা যাবে, যোনি নিয়ে সেভাবে নয়। আবার যোনি নিয়ে যেভাবে খেলা করা যাবে, নিতম্ব নিয়ে সেভাবে নয়। পুরুষদের শরীরে অবশ্য খেলা করার জিনিস একটিই। সেটি নিয়ে নাড়াচাড়া করা ছাড়া মহিলাদের আর বিশেষ কিছু করার থাকে না।

তবে বাতসায়নের কামসূত্রেও বলা হয়েছে, নারী শরীর নিয়ে খেলতে জানতে হয়। যৌনসম্পর্ক নিয়েও যাঁরা গবেষণা করেন, তাঁরাও বলেন, সঙ্গমে বেশি সুখ পেতে গেলে ফোর প্লে-র খুব প্রয়োজন। মহিলারা যেহেতু সহজে উত্তেজিত হন না, সেহেতু তাঁদের নিয়েই প্রথমে খেলতে হয়। তাঁর স্তন, পেট, নিতম্ব, যৌনাঙ্গ সব নিয়েই খেলা করা যায়। শুধু খেলতে জানতে হয়। বড়দের খেলায় পারদর্শী না হলে, সেক্সি সঙ্গিনী নিয়ে কী হবে?