দ্য পিপল ডেস্কঃ ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে দেশ।

করোনার আতঙ্ক কাটিয়ে ছন্দে ফিরছে বিভিন্ন পরিষেবা।

এবার অঙ্গনওয়াড়ি সেন্টারগুলো খোলার নির্দেশ দিল শীর্ষ আদালত।

বুধবার রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে অঙ্গনওয়াড়ি সেন্টারগুলো খোলার নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত।

৩১ জানুয়ারির মধ্যে কনটেনমেন্ট জোন বাদে সারা দেশে অঙ্গনওয়াড়ি পরিষেবা চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

২০১৯ সালের নভেম্বরে চিনের উহান থেকে ছড়িয়েছে নভেল ভাইরাস করোনা।

ধীরে ধীরে মারণ ভাইরাস করোনা ত্রাস ছড়িয়েছে গোটা বিশ্বে।

বিশ্বের একাধিক দেশের মতো ভারতেও করোনা রোধ করতে শুরু হয়েছিল লকডাউন।

লকডাউনের সময় বন্ধ ছিল সমস্ত পরিষেবা।

বন্ধ ছিল অঙ্গনওয়াড়ি পরিষেবাও।

রান্না করা খাবারের পরিবর্তে চাল ও অন্য শুকনো জিনিসপত্র বিলি করা হয়েছে।

এবার শীর্ষ আদালতের নির্দেশে শুরু হতে চলেছে অঙ্গনওয়াড়ি পরিষেবা।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানিয়েছে, অপুষ্টিতে আক্রান্ত গর্ভবতী মহিলা, সদ্য মা হওয়া মহিলা এবং শিশুদের কাছে খাদ্য সুরক্ষা আইন মেনে পুষ্টিকর খাদ্য সরবরাহের বিষয়টিও নিশ্চিত করতে হবে।

ইতিমধ্যে করোনার স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেরালা, তামিলনাড়ু, গুজরাটে খুলেছে দশম ও দ্বাদশের স্কুল।

স্কুল খোলার তোড়জোড় হচ্ছে দিল্লি সহ এরাজ্যেও।

করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শিক্ষক-শিক্ষিকা সহ পড়ুয়াদেরও।

তবে অঙ্গনওয়াড়ি চালু হলে মিড-ডে মিল পরিষেবাও শুরু হবে।

ছোট ছোট বাচ্চাদের নিয়ে করোনা বিধি মেনে চলে কতটা সম্ভব হবে তা নিয়ে কপালে চিন্তার ভাঁজ অভিভাবকদের।