দ্য পিপল ডেস্কঃ অবশেষে পুরুলিয়া আদালত জামিন দিল কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সপ্তাহে একদিন আদালতে হাজিরা দেওয়ার শর্ত সাপেক্ষে জামিন পেলেন তিনি।

জামিনের খবরে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র তাঁর প্রতিক্রিয়ায় জানান, সত্যের জয় হল। পুরুলিয়া কোর্টের মাননীয় বিচারক কংগ্রেসের মুখপাত্র সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের জামিন মঞ্জুর করেছেন। আমরা প্রথম থেকেই আদালতের উপর ভরসা রেখেছিলাম।

তিনি আরও বলেন, সন্ময়ের উপর যেভাবে পুলিশের সঙ্গে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা আক্রমণ করেছিল তাঁদের বিরুদ্ধে আইনের পথে দল লড়বে এর সঙ্গেই রাজ্য সরকারের হাতে গণতন্ত্র হত্যার বিরুদ্ধে বামপন্থী দলগুলির সঙ্গে একসাথে সারা রাজ্যে পথে নেবে লড়াই হবে।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যের যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করেন সন্ময়, এমন দাবি করে গত ২৩ সেপ্টেম্বর পুরুলিয়ার সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ জানান যুব তৃণমূলের পুরুলিয়া জেলা সভাপতি প্রণব দেওঘরিয়া।

এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে পুরুলিয়ার সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ।

১৮ অক্টোবর শুক্রবার জেলা আদালতে তোলা হয় সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ করে ২ দিনের লপুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।  

কংগ্রেস নেতার গ্রেফতারের প্রতিবাদে জেলাজুড়ে ও রাজ্যের একাধিক জায়গায় পথে নামেন কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা। রাজনৈতিক কারণে ফাঁসিয়ে দিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে রাজ্যের বর্তমান শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেয় বিজেপি। কংগ্রেস নেতার পাশে থাকার বার্তা দিতে শনিবার তাঁর বাড়িতে যান বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার ও নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here