দ্য পিপল ডেস্কঃ জহরলাল নেহরু ইউনিভার্সিটি (জেএনইউ)-র পড়ুয়াদের মিছিলে ফের লাঠিচার্জ করল দিল্লি পুলিশ। সোমবার রাষ্ট্রপতির কাছে তাদের দাবি পেশ করার উদ্দেশ্যে ক্যাম্পাস থেকে মিছিল করে বের করে জেএনইউর পড়ুয়ারা।

রাষ্ট্রপতি ভবনের পথে তাদের লংমার্চে হাতে ছিল বিভিন্ন শ্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড। অধিকাংশ প্ল্যাকার্ডে লেখা ‘শিক্ষা সবকা অধিকার, বনধ কর ইসকা ভ্যাপার’।

কিন্তু রাষ্ট্রপতি ভবন পর্যন্ত যাওয়ার অনেক আগেই পড়ুয়াদের মিছিল আটকে দেয় পুলিশ।

জেএনইউ পড়ুয়াদের রাষ্ট্রপতি ভবন অভিযান

সেই বাধা ঠেলে এগোতে গেলেই পড়ুয়াদের সঙ্গে খন্ডযুদ্ধ শুরু হয় পুলিশের। প্রতিবাদী পড়ুয়াদের ছত্রভঙ্গ করতে নির্বিচারে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

জেএনইউ কাণ্ডে তোলপাড় সংসদ, উচ্চপর্যায়ের তদন্তের দাবি কংগ্রেস-বিএসপির

জেএনইউতে হস্টেল ফিজ বৃদ্ধির প্রতিবাদে গত পাঁচ সপ্তাহ ধরে স্ট্রাইক চলছে পড়ুয়াদের। পড়ুয়াদের দাবির প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার কোনও রকম সহমর্মিতা দেখায়নি।

গত ২৯ নভেম্বর জেএনইউ স্টুডেন্টস ইউনিয়নের চার সদস্যের কমিটি কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করে তাদের দাবি জানায়। পড়ুয়াদের ইউনিয়ন জানায়, হস্টেল ফিজ বৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিল না করা পর্যন্ত তাদের ধর্মঘট চলবে।

অন্যদিকে, গত ৫ ডিসেম্বর রাজ্যসভায় এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে মানব সম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানান, গত ৪০ বছরে হস্টেল ফিজ বাড়ানো হয়নি।

অথচ হস্টেল রক্ষনাবেক্ষণে খরচ বেড়েছে। ফলে ‘নো প্রফিট নো লস’ ভিত্তিতে এর রক্ষনাবেক্ষণে ফিজ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে জেএনইউ কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুনঃ জেএনইউ এখন ডিটেনশন ক্যাম্প, দাবি সিপিআই সাংসদের

যদিও শিক্ষার অধিকারের দাবিতে অনড় জেএনইউর পড়ুয়ারা।

গত মঙ্গলবারও হস্টেল ফিজ বৃদ্ধির প্রস্তাব বাতিলের দাবিতে ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল করেছে জেএনইউ পড়ুয়ারা। এদিন রাজপথে নামল তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here