দ্য পিপল ডেস্কঃ অন্তরাল থেকে প্রকাশ্যে গোয়েন্দা প্রধান রাজীব কুমার। আলিপুর আদালতে স্বশরীরে হাজির হয়ে আগাম জামিন নিশ্চিত করলেন প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার।

মঙ্গলবার রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে কলকাতা হাইকোর্ট। সেই আগাম জামিন নিশ্চিত করতে এবং আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে আদালতে হাজির হন তিনি। 

মঙ্গলবার ৫০ হাজার টাকার বন্ডের বিনিময়ে রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুরে করে কলকাতা হাইকোর্ট। হাইকোর্টের তরফে জানানো হয়েছিল, হেফাজতে নিয়ে রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন নেই। তবে রাজীব কুমারকে তলবের ৪৮ ঘণ্টা আগে নোটিশ পাঠাতে হবে জানিয়ে দেন বিচারপতি।

যদিও সিবিআই সূত্রের খবর, রাজীব কুমারের ওপর গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করতে সুপ্রিম কোর্টে উপস্থিত হতে পারে সিবিআই।

উল্লেখ্য, সারদা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলেছেন সিবিআই অফিসাররা। এমনকি আদালতের পক্ষ থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেওয়ার পর রাজীব কুমারের দেখা পাওয়া যাচ্ছে না কেন?

আদালতে মামলা চলাকালীন এপ্রসঙ্গ একাধিকবার তুলে ধরেন সিবিআই আইনজীবী।

প্রসঙ্গত, ১৩ সেপ্টেম্বর রাজীব কুমারের ওপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেয় কলকাতা হাইকোর্ট। এরপরেই রাজীব কুমারের ওপর লুকআউট নোটিশ জারি করে সিবিআই।

যদিও ১ সেপ্টেম্বর থেকে তিনি ছুটিতে রয়েছেন বলে নবান্ন সূত্রের খবর। যদিও কি কারণে তিনি ছুটি নিয়েছেন তা সিবিআইকে স্পষ্টভাবে জানায়নি নবান্ন।

২১ সেপ্টেম্বর রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন জানিয়ে আলিপুর জেলা দায়রা আদালতে উপস্থিত হন তাঁর আইনজীবীরা। সেখানেও রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের কথা জানায় সিবিআই আইনজীবীরা।

মামলা চলাকালীন রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলে বিষয়টি ‘ইকোনোমিক অফেন্স’ বলে দাবী করেন সিবিআইয়ের আইনজীবী।

উভয় পক্ষের সওয়াল-জবাব শোনার পর সেদিনেও রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে আলিপুর আদালত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here