দ্য পিপল ডেস্কঃ সাধারণতন্ত্র দিবসে দিল্লিতে পালিত হতে চলেছে কৃষকদের ট্র্যাক্টর মিছিল।

মিছিলের অনুমতি নিয়ে ধন্দে ছিল কর্মকর্তারা। অবশেষে রাজধানীতে ট্র্যাক্টর মিছিলের অনুমতি দিয়েছে দিল্লি পুলিশ।

শনিবার এমনটাই দাবি করলেন কৃষক সংগঠনের নেতারা।

যদিও সে বিষয়ে দিল্লি পুলিশের তরফে প্রকাশ্যে বা সরকারিভাবে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

কৃষকদের পক্ষ থেকে দিল্লি পুলিশের কাছে ট্রাক্টর মিছিলের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল।

কিন্তু সেই দিন প্রধানমন্ত্রী মোদি অংশ নেবেন সাধারণতন্ত্র দিবস অনুষ্ঠানে।

সেই কথা ভেবেই ট্রাক্টর মিছিলে অনুমতি দেওয়া হচ্ছিল না।

এই নিয়ে পুলিশ এবং কৃষকদের মধ্যে বৈঠকও হয়েছে।

কৃষকরা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা রেড রোডেই শান্তিপূর্ণভাবে ট্রাক্টর মিছিল করবেন।

জানা গিয়েছে, প্রজাতন্ত্র দিবসে কৃষকদের মিছিলে অংশ নেবেন হরিয়ানা, পঞ্জাব এবং পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের হাজার হাজার কৃষক।

এদিন ২ লক্ষ ট্রাক্টর নামবে রাস্তায়। পঞ্জাব কিষাণ সংঘর্ষ কমিটির সদস্য সতনাম সিং পানু জানিয়েছেন, সাধারণতন্ত্র দিবসে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কৃষকরা আসবেন দিল্লিতে।

দিল্লির রিংরোডে সবাই একত্রিত হবেন।

দিল্লি স্পেশাল সিপি (গোয়েন্দা সংস্থা)-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রবিবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ প্রজাতন্ত্র দিবসের ট্রাক্টর মিছিল সংক্রান্ত তথ্য সংবাদমাধ্যমের সামনে তুলে ধরবে।

দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে মিছিলে অনুমতি দেওয়া হলেও তা শর্তসাপেক্ষে দেওয়া হয়েছে।

বলা হয়েছে, গোটা রিংরোড জুড়ে মিছিল করা যাবে না। পাঁচটি এলাকায় এই মিছিল করা যাবে।

সিঙ্ঘু সীমান্ত থেকে ট্র্যাক্টর মিছিল সরিয়ে এটি কানঝাওয়ালা, বাওয়ানা, আউচান্দি সীমান্ত হয়ে হরিয়ানায় চলে যাবে।

টিক্রি সীমান্ত থেকে ট্র্যাক্টর মিছিল নাগলাই, নাজাফগড়, ঝোদা, বদলি হয়ে কেএমপিতে যাবে।