ফাইল ছবি

দ্য পিপল ডেস্কঃ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর বৃহস্পতিবার এই দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয়েছে। এদিনের আলোচনা এসেছে করোনা ভাইরাস প্রসঙ্গ।

ভারত ও রাশিয়া দুই দেশেই করোনা সংক্রমণ ক্রমবর্ধমান। এই পরিস্থিতিতে আলোচনা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারত ও রাশিয়া দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে সুদৃঢ় করতে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই রাষ্ট্রনেতাই।

ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, করোনা পরবর্তী বিশ্বকে ঘুরে দাঁড় করানোর জন্য় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করেছে দু’দেশ।

চলতি বছরের শেষের দিকে দ্বিপাক্ষিক সম্মেলনে পুতিনের সফর নিয়ে কথা বলেছেন মোদি।

বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে আরও গতি আনার বিষয়ে দু’দেশই জোর দিয়েছে।

তবে এখানেই শেষ বলে মনে করছেন না রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। দুই রাষ্ট্রনেতা শুধুমাত্র দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের কারণে ফোনে কথা বলেছেন এটা মানতে চাইছেন না রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

বিদেশমন্ত্রক কিছু না জানালেও বিশেষজ্ঞদের মতে, সাম্প্রতিক ভারত-চিন সম্পর্কের ওঠাপড়া নিয়েই আলোচনা হয়েছে ‘দুই বন্ধুর’।

ভারত-চিন সম্পর্কের অবনতির কারণে যে যুদ্ধের আবহ তৈরি হচ্ছে তা নিয়েই কথা বলে থাকতে পারেন দুই রাষ্ট্রনেতা।

সম্প্রতি গণভোটে সংবিধান সংশোধনের পক্ষে রায় দিয়েছে রুশ জনতা। এর জেরে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে পারবেন পুতিন।