দ্য পিপল ডেস্কঃ জুলাই থেকে অগস্টের মধ্যে করোনা সংক্রমণের বৃদ্ধি রেকর্ড জায়গায় পৌঁছবে বলে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিল। সেই মতো জুলাইমাসের সুরুতেই বাড়ছে সংক্রমণ।

দেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত হলেন আরও ১৯ হাজার ১৪৮ জন। ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ লক্ষ ৪ হাজার ৬৪১।

প্রাণ হারিয়েছেন আরও ৪৩৪ জন। ফলে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে মোট ১৭ হাজার ৮৩৪ জনের। স্বস্তির বিষয় একটি গত কয়েকদিনে দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির হার কিছুটা হলেও কমেছে।

প্রতিদিন যেখানে ২০ হাজারের কোঠায় সংক্রমণ বাড়ছিল সেটাই এখন ১৮ থেকে ১৯ হাজারের কাছাকাছি এসে দাঁড়িয়েছে।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে। বর্তমানে দেশে করোনা সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২ লক্ষ ২৬ হাজার ৯৪৭ জন। সুস্থ হয়ে গিয়েছেন ৩ লক্ষ ৫৯ হাজার ৮৫৯।

করোনা সংক্রামিত ও মৃতের সংখ্যার নিরিখে এখনও শীর্ষেই মহারাষ্ট্র। আক্রান্ত ১ লাখ ৮০ হাজারের বেশি। মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৫৩ জনের। মহারাষ্ট্রে কোভিড সংক্রমণের বেশিরভাগই মুম্বইতে। সেখানে কোভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ৭৫ হাজার ছাড়িয়েছে।

রাজধানীতে কোভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ৯০ হাজার ছুঁতে চলেছে। তবে সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থও হয়েছেন ৫৯ হাজারের বেশি রোগী।

গুজরাট ও তামিলনাড়ুতেও কোভিড সংক্রমণ চিন্তার কারণ। গুজরাটে আক্রান্ত ৩৩ হাজার ২৩২ এবং তামিলনাড়ুতে ৯৪ হাজার ৪৯।

সংক্রমণের নিরিখে দিল্লিকেও ছাপিয়ে গেছে তামিলনাড়ু।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর, দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও সুস্থতার হারও বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ৮৮০ জন। দেশে মোট সুস্থ হয়ে ওঠাদের সংখ্যা সাড়ে তিন লাখের বেশি। মাসের শুরুতে দেশে সুস্থতার হার প্রায় ৬০%।