বহুগুণ সমৃদ্ধ আমলকি -পেটের সমস্যায়

দ্য পিপল ডেস্কঃ প্রকৃতি এখন মেতেছে হেমন্তে। আর হেমন্ত মানেই শীতের কড়া নাড়া। আর শীত নামেই নানা রকম টাটকা ও মরশুমি ফলে ছেয়ে যাবে বাজার। যার অন্যতম মিলবে বহুগুণ সমৃদ্ধ আমলকি -ও। 

বহুগুণ সমৃদ্ধ আমলকি এমন একটি ফল যা ত্বক থেকে চুল এমনকী পেটের সমস্যা থেকে আপনাকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। 

প্রোটিন, মিনারেল, ফাইবারে সমৃদ্ধ এই ফলটি খাওয়ায় কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

তাই শীতের গোটা মরশুমে সঙ্গী করুন এই উপকারি ফলটিকে।

আরও পড়ুনঃ শীতে শুষ্ক ত্বকের সমস্যা আর নয়

বহুগুণ সমৃদ্ধ আমলকি –পেটের সমস্যায়

১. আমলকি বদহজম ও পেটের গোলমাল থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। প্রত্যেক দিন একটু করে আমলকি খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য ও পাইলসের সমস্যা দূরে যায়।

এর জন্য কাঁচা আমলকি থেকে পারেন অথবা ছোট টুকরো করে কেটে রোদে শুকিয়েও খেতে পারেন।

২. আমলকির স্বাদ একই সঙ্গে একটু টক আবার তিতো, এই দুই উপাদান মুখের রুচি বাড়ায়।

এক্ষেত্রে কাঁচা আমলকি সব থেকে বেশি উপকারি। ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নুন দিতে খেতে পারেন।

৩. দাঁত শক্ত করতে সাহায্য করে ও মুখের দুর্গন্ধ, পাইলসের মতো সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

কাঁচা হোক বা জুস, নয়তো শুকনো সব রকমভাবে আমলকি খাওয়া এই রোগের ক্ষেত্রেও উপকারি।

চুলের রোগ সারাতে

১. চুল পড়া রোধে খুব ভালো কাজ করে এই ফলটি। আমলকি টুকরো টুকরো করে কেটে নারকেল তেলের মধ্যে ভিজিয়ে রোদে দিন। দেখবেন তেলের রং বদলে যাচ্ছে। প্রত্যেকদিন ব্যবহার করলে তফাত্টা নিজেই বুঝতে পারবেন।

২. খুসকি দূর করতেও পারদর্শী আমলকি। সেক্ষেত্রে রস তৈরি করে পাতিলেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে তুলের ত্বকের মাসাজ করুন। ঘন্টাখানেক রেখে ধুয়ে ফেলুন।

৩. চুল কালো করতে ও দীর্ঘদিন চুল কালো রাখতে আমলকির জুড়ি মেলা ভার। সেক্ষেত্রে নিয়মিত আমলকির তেল ব্যবহার করুন।  

ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে

১. আমলকির রস ব্রণ কমানোর অব্যর্থ ওষুধ। ত্বক পরিস্কার করে তুলো দিয়ে ব্রণর উপরে আমলকির রস লাগিয়ে শুকোতে দিন।

২. ত্বক উজ্বল করতে সাহায্য করে। আমলকির রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে মুখের ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন।

৩. আমলকির রসের সঙ্গে পাতিলেবুর রসের মিশ্রণ ত্বকের দাগ-ছোপ দূর করতে দারুণ কাজ দেয়। সেই সঙ্গে ত্বকের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করতে সাহায্য করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here