উষ্ণতার জন্য পরকীয়ায় মজছেন ভারতীয় মহিলারা!

0
84

দ্য পিপল ডেস্কঃঅগ্নি সাক্ষী রেখে শপথ নিয়েছিলেন আজীবন পাশে থাকার। এক জনের হৃদয় যা বলবে, অন্যজনও তাই চাইবেন। শালগ্রাম শিলার সামনে এই শপথই নেন হিন্দু দম্পতি। অন্যান্য ধর্মাবলম্বীরাও মোটামুটি এই শপথই নেন বিয়ের সময়।

প্রতিনিয়ত এই শপথই ভেঙে চলেছেন প্রতি দশজনের মধ্যে সাতজন মহিলা। পরকীয়ায় মজে এঁরাই নিত্য ঠকিয়ে চলেছেন তাঁদের স্বামীদের। এই তথ্য জানা গিয়েছে ডেটিং অ্যাপ গ্লিডেন নামক একটি সংস্থার তরফে। ২০১৭ সালে আসে ভারতে লঞ্চ করে এই অ্যাপ। তার পরেই হু হু করে বাড়তে থাকে অ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা। বর্তমানে ভারতের প্রায় পাঁচ লক্ষ নারী-পুরুষ এই অ্যাপ ব্যবহার করেন। তাঁদের ওপরই সমীক্ষা চালিয়েছিল সংস্থাটি। তখনই উঠে আসে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য।

জানা যায়, প্রতি দশজন ভারতীয় মহিলা পরকীয়ায় মজে রয়েছেন। স্বামী ছেড়ে কেন এঁরা পরপুরুষের প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন? এর উত্তরও মিলেছে নানা রকম। কোনও মহিলা বলছেন, স্বামীকে বাড়ির কোনও কাজে পাওয়া যায় না। কেউ বলছেন, বহু ব্যবহারে প্রেম জীর্ণ হয়ে যায়। দীর্ঘদিনের দাম্পত্য জীবন নীরস হয়ে পড়েছে। বিবাহিত জীবনে নতুন করে কোনও উত্তেজনা তাঁরা আর পাচ্ছেন না। তাই জড়িয়ে পড়েছেন নয়া সম্পর্কে।

ভারতের কোন কোন শহরের মহিলারা বেশি করে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ছেন? সেই তথ্যও উঠে এসেছে গ্লিডেনের সমীক্ষায়। সমীক্ষা অনুযায়ী, মুম্বই, বেঙ্গালুরু ও কলকাতার মহিলারা সব থেকে বেশি পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ছেন। তবে এতে যে সংসার ভেঙে যাচ্ছে, তা নয়। সমীক্ষায় উঠে আসা তথ্য অনুযায়ী, প্রতি দশজনের মধ্যে চারজন মহিলা দাবি করছেন, পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ার পর স্বামীর সঙ্গে তাঁদের সম্পর্ক আরও গাঢ় হয়েছে।

তবে সবাই যে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ার কথা স্বীকার করেছেন, তা নয়।মহিলাদের মধ্যে মাত্র ১৩ শতাংশ ও পুরুষদের মধ্যে মাত্র ২০ শতাংশ স্বীকার করেছেন, তাঁরা পরকীয় মজে রয়েছেন। কারা জড়িয়ে পড়ছেন পরকীয়ায়? সমীক্ষায় প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ৩৪ থেকে ৪৯ বছর বয়সী মহিলারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন বেশি।

দাম্পত্য জীবনের একঘেঁয়েমি থেকে মুক্তি পেতেই পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ছেন তাঁরা। ওই অ্যাপ ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৭৭ শতাংশ মহিলাই স্বীকার করেছেন, একটু উষ্ণতার জন্যই পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন তাঁরা। তবে এজন্য সংসার ভাঙতে রাজি নন বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন অ্যাপ ব্যবহারকারীরা।




LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here