জেএনইউ

দ্য পিপল ডেস্ক: পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীতে ছয়লাপ দিল্লির জহরলাল নেহরু ইউনিভারসিটি (জেএনইউ)-কে ডিটেনশন ক্যাম্পের সঙ্গে তুলনা করলেন সিপিআই সাংসদ বিনয় বিশ্বম। সেই সঙ্গে রাজ্যসভায় মঙ্গলবার জেএনইউ ইস্যুতে আলোচনার পরিসর না মেলায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

এদিন রাজ্যসভার এই সাংসদ বলেন, গুরুতর এই ইস্যুতে রাজ্যসভায় আলোচনার পরিসর না থাকাটা বড় দুর্ভাগ্যের বিষয়। ওদিকে জেএনইউ-র সব কিছু নষ্ট করে দিয়েছে পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনী। তাঁর দাবি, জেএনইউ এখন ডিটেনশন ক্যাম্প হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, নাকভির নিশানায় মমতা

এছাড়াও বিনয় বিশ্বম বলেন, ‘সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পড়ুয়াদের উপর পুলিশের আক্রমণ নিয়ে আমরা রাজ্যসভায় ২৬৭ ধারায় আলোচনার দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু এনিয়ে কোনও আলোচনা ও বিতর্কের অনুমতি দেওয়া হয়নি’। জেএনইউ এভাবে চলতে পারে না বলেও জানান তিনি।

এদিন জেএনইউ ইস্যুতে তোলপাড় হয় রাজ্যসভা। বিনয় বিশ্বমের জেএনইউ নিয়ে আলোচনার দাবি খারিজ হয়ে গেলে প্রতিবাদে সরব হয় কংগ্রেস সহ বিরোধীরা। বিরোধী সাংসদদের তুমুল হট্টগোলে দুপুর দুটো পর্যন্ত অধিবেশন মুলতুবি করেন চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু।

জেএনইউতে হস্টেল ফি বৃদ্ধি সহ কর্তৃপক্ষের বেশ কিছু নয়া বিধিনিষেধের এবং শিক্ষাক্ষেত্রকে বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে গত সপ্তাহে আন্দোলন শুরু করে পড়ুয়ারা। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পড়ুয়াদের জমায়েত জোর করে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।পড়ুয়াদের লাগাতার বিক্ষোভের চাপে কর্তৃপক্ষ নয়া হস্টেল ফি কিছুটা হ্রাস করে। কিন্তু পড়ুয়ারা তাও মেনে নেয়নি।

আরও পড়ুনঃ বয়স ১২? ফিরে যাও, শবরীমালা থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হল কিশোরীকে

সোমবার পড়ুয়ারা সংসদ অভিযানের চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়। সেই  বাধা ঠেলে সরাতে গেলে পড়ুয়াদের উপর ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পুলিশ। একাধিক ছাত্রছাত্রী আহত হয়। বেশ কয়েকজন পড়ুয়াকে আটক করে পুলিশ। উল্লেখ্য, সিঙ্গল রুমের ভাড়া ১০ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩০০ টাকা। ডাবল রুমের ভাড়া ২০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা, মেসের ফেরতযোগ্য সিকিউরিটি জমা সাড়ে পাঁচ হাজার থেকে বেড়ে হয়েছে ১২ হাজার টাকা।

যদিও পড়ুয়াদের আন্দোলনের চাপে পরে কতৃপক্ষ এই ফি হ্রাস করে। সেক্ষেত্রে সিঙ্গল রুমের ভাড়া ৬০০ টাকা করে। আর দারিদ্রসীমার নিচে থাকা পড়ুয়াদের জন্য এই ফি করে ৩০০ টাকা। পড়ুয়ারা সহ শিক্ষা মহলের মতে, হস্টেল ফি এই হারে বেড়ে গেলে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের গরীব ঘরের মেধাবী  পড়ুয়ারা এই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here