দ্য পিপল ডেস্কঃ করোনার আবহে বিগত সাত মাস ধরে নিকোপার্ক বন্ধ ছিল।

সাধারণ মানুষের জন্য অবশেষে বৃহস্পতিবার থেকে খুলে গেল নিকো পার্ক অ্যামিউজমেন্ট পার্ক।

সাত মাস বন্ধ থাকার ভেতরেও দুমাস পর থেকেই নিকো পার্কে প্রায় ৫০ জন কর্মী প্রতিনিয়ত সপ্তাহে ছয়দিন করে পার্কে আসতেন এবং পরিষ্কার পরিছন্নতা বজায় রাখতেন।

নিকো পার্কের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অভিজিৎ দত্ত জানান সাত মাসের ভেতরে দুমাস পর থেকে যে সমস্ত কর্মীরা সপ্তাহে ছদিন করে এসেছেন তাদের মধ্যে করোনা কারও হয়নি।

কিন্তু সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে নিকো পার্ক কর্তৃপক্ষ অনলাইন টিকিট এর ওপর বিশেষ জোর দেবেন বলে জানা গিয়েছে।

এছাড়া গেটে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে থার্মাল গান দিয়ে পরীক্ষা করা হবে এবং স্যানিটাইজ করা হবে প্রত্যেক জনকে।

যেহেতু বিশাল বড় মাঠের ভেতরে এবং খোলা জায়গায় এই পার্কটি অবস্থিত বিভিন্ন জায়গায় সোশ্যাল ডিসটেন্স মার্ক তৈরী করা হয়েছে।

প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রাইট স্যানিটাইজ করা হচ্ছে।

এছাড়া নিকো পার্কের ভেতরে যে ওয়াটার পার্ক টি আছে তার জল সব সময় ক্লোরিন দিয়ে পরিষ্কার রাখা হয় যেহেতু বৃহস্পতিবার থেকে ওয়াটার পার্ক খুলে দেয়া হলো ক্লোরিন এর মাত্রা কিছুটা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

কাউকে মাস্ক ছাড়া ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না যদি কেউ মাস্ক পড়তে ভুলে যান তাদেরকে নিকো পার্কে তরফ থেকে মাস্ক প্রদান করা হচ্ছে।

এদিন সকাল দশটা নাগাদ পার্ক খোলা হয় সাধারন মানুষের জন্য এবং প্রথম ১ ঘন্টার ভেতরে প্রায় ১০ জন আসেন এবং তারা জানান মানুষকে আরো সচেতন হয়ে আসতে হবে।