দ্য পিপল ডেস্কঃ আগামী ১০ই অগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের নয়া মরশুম। গত মরশুমে বেশ কয়েকটি নিয়ম নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল ইপিএলে। তাই নতুন মরশুমের শুরুতে বদল আনছে বেশ কয়েকটি নিয়মে।

 প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে লিভারপুল ও নরউইচ সিটি। সেই ম্যাচ থেকেই লাগু হবে নয়া নিয়ম। সেগুলি একনজরে দেখে নেওয়া যাক-

   ১. সাবস্টিটিউটঃ  খেলার মাঝে সময় অপচয় হওয়া থেকে বাঁচাতে খেলোয়াড় পরিবর্তনে নয়া নিয়ম ইপিএলে। পরিবর্তনের সময় খেলোয়াড়রা মাঠের যে কোনও প্রান্ত থেকেই মাঠের বাইরে যেতে পারবেন।

  ২. ডিফেন্সিভ ওয়ালঃ বিপরীত দলের বক্সের সামনে ফ্রি কিক নেওয়ার কিছুটা দূরত্বে চারজন বা অধিক ডিফেন্ডার মিলে একটি দেওয়াল তৈরি করে। আগে এই ওয়ালে প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়রাও থাকত। তবে নয়া নিয়ম অনুযায়ী, ওয়ালের ১গজের মধ্যে কোনও অ্যাটাকিং দলের খেলোয়াড় থাকবে না।  

৩. ওয়ান ড্রপঃ তুলে দেওয়া হচ্ছে ওয়ান ড্রপ বা ড্রপ বলস্‌ নিয়মটি। আচমকাই কোন কারণবশত খেলা বন্ধ হয়ে গেলে, পুনরায় খেলা চালু করতে ওয়ান ড্রপ নিয়মটি ব্যবহার করা হত। পরিবর্তে নয়া নিয়মে বলা হয়েছে, যে দলের পায়ে শেষ বল থাকবে। তারাই পুনরায় খেলা চালু করবে।

৪. পেনাল্টিতে গোলকিপার পজিশনঃ  পেনাল্টিতে গোলকিপারের মুভমেন্ট নিয়ে বহুবার বিতর্ক তৈরি হয়। তাই এবারে পেনাল্টির সময় গোলকিপারের একটি পা গোললাইনের ওপর থাকতে হবে। সামনে এগিয়ে যাওয়া বা গোল লাইনের পিছনে থাকলে কড়া শাস্তি দেওয়া হবে।

৫. গোল কিকঃ সবচেয়ে চাঞ্চল্যকর পরিবর্তিত নিয়ম। আগে গোলকিপারের বল কিক করার আগেই  মুভ করতে বা পজিশনিং করতে পারত খেলোয়াড়রা। সেই নিয়মটি বদল আনা হয়েছে। নয়া নিয়ম অনুযায়ী বল কিকের আগে কোনও মুভমেন্ট করা যাবে না।

৬. হ্যান্ড বলঃ  ইচ্ছাকৃত বা অনিচ্ছাকৃতভাবে হাতে লেগে কোন গোল হলে সেটিকে গ্রাহ্য হবে না। এছাড়াও, অভিযুক্ত খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে কার্ড দেখানো হবে।

৭. গোল উল্লাসঃ গোল করার পর সেলিব্রেশন করলে, পরে সেই গোলটি বাতিল হলে খেলোয়াড়কে শাস্তি দেওয়া হবে।

৮. হেড টু হেড রেকর্ডঃ লিগের শেষের দিকে দুই দলের পয়েন্ট সংখ্যা, গোল করার এবং গোল হজম করার সংখ্যা সমান হলে। তখন দুই দলের মধ্যে হেড টু হেড দেখা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here