‘যত হিংসা বাংলাতেই’ , মূর্তি কাণ্ডে ‘বিমূর্ত’ শাহ

0
40

দ্য পিপল ডেস্কঃ বিজেপি কর্মীরা মূর্তি ভাঙেনি, ভেঙেছে তৃণমূল কর্মীরাই। দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতর থেকে সরাসরি অভিযোগ তুললেন সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে উপযুক্ত তথ্য এদিন সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন তিনি।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলের দিকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, কলেজের ভিতরে সন্ধ্যে সাতটা অবধি ছিলেন তৃণমূল কর্মীরাই। কলেজের ভিতর ছিল তৃণমূল কর্মীরা এবং বাইরে ছিল বিজেপির সমর্থকরা ।

তাহলে বিজেপি কর্মীরা কিভাবে মূর্তি ভাঙল ? এই প্রশ্নও তোলেন তিনি।এমনকি ঘটনার সময় দুই দলের মাঝে পুলিশ থাকা সত্ত্বেও মূর্তি কিভাবে বাইরে এল সে নিয়েও প্রশ্ন তোলেন বিজেপি সভাপতি।

এদিন সরাসরি তৃণমূলের দিকে নিশানা রেখে অমিত শাহ জানান, রাজ্যে ৬ দফা নির্বাচনের পর নিজেদের সময় ফুরিয়ে এসেছে বুঝতে পেরেই এই কাজ করছে তৃণমূল। তিনি বলেন, ১৬ টি রাজ্যে ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশের সবথেকে বেশি হিংসাত্মক ঘটনা শুধুমাত্র বাংলাতেই ঘটেছে বলে অভিযোগ অমিত শাহের।একইসঙ্গে নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অমিত শাহ। ষষ্ঠ দফার নির্বাচন অবধি রাজ্যজুড়ে একের পর ঘটনার পরেও নির্বাচন কমিশন কি ভাবে চুপ থাকেন সেই নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।    

মঙ্গলবার উত্তর কলকাতার ধর্মতলা থেকে শিমলা স্ট্রিট অবধি রোড শো ছিল বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের। অমিত শাহের রোড শো ঘিরে কালো পতাকা দেখাতে শুরু করে কলকাতা ইউনিভার্সিটির পড়ুয়ারা। এরপরেই দুই দলের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। রনক্ষেত্রের চেহারা নেয় কলেজ স্ট্রিট চত্বর।

মঙ্গলবারের ঘটনায় তৃণমূল তার ওপর প্রাণঘাতী হামলা চালায় বলে দাবী করেন অমিত্ শাহ। তিনি বলেন, সিআরপিএফ ছিল না সেখানে । শুধুমাত্র রাজ্য পুলিস । দলীয় কর্মীরা ব্যপকভাবে মার খেয়েছে তৃণমূলের হাতে । সেই অবস্থা থেকে কোনওক্রমে বেঁচে ফিরেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে বাংলা থেকে ২৩ এর বেশি আসনের দাবী জানিয়েছেন অমিত শাহ। এমনকি দেশের ৩০০ -র বেশি আসন পেয়ে আবারও ক্ষমতায় বিজেপি সরকার আসবে বলে দাবী বিজেপি সভাপতির ।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here