..স্নেহাশ্রী বিশ্বাস..

বিশ্বজুড়ে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে কোভিড ১৯। এই রোগে মৃতের সংখ্যা সারা পৃথিবীতে ২ লক্ষেরও বেশি।

তবে দেখা গিয়েছে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে বেশিরভাগই পুরুষ। মহিলাদের থেকে পুরুষরাই কেন বেশি বলি হচ্ছেন এই রোগে ? জানেন কি?


‘দ্য বেটার হাফ : অন জেনেটিক সুপারিটি অব উইমেন’ এর রচয়িতা ডা. শারন মোলেম জানিয়েছেন, মহিলাদের শরীরে xx (দুটি) ক্রোমোজম থাকে।

অপরদিকে , পুরুষের শরীরে xy ক্রোমোজম থাকে। এই x ক্রোমোজম মানুষের বেঁচে থাকার জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

মহিলাদের শরীরে দুটি x ক্রোমোজম থাকায় এদের দীর্ঘায়ু হওয়ার সুযোগ বেশি। মহিলাদের তুলনায় পুরুষের শারীরিক শক্তি ও পেশিক্ষমতা বেশি থাকলেও তা বেঁচে থাকার জন্য জরুরি নয়।

গবেষকরা বলছেন একারণেই করোনা মহিলাদের থেকে তুলমূলক দূরে থাকছে। এখানে একটা প্রশ্ন উঠতে পারে, যেসব মহিলারা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন তাঁদের ক্ষেত্রে কারণ কী?

গবেষকদের উত্তর, মহিলাদের দুটি x ক্রোমেজেম থাকে মানেই যে করোনা হবে না এমনটা নয়। করোনায় মহিলারাও আক্রান্ত হয়েছে। সেক্ষেত্রে তাঁদের ইমিউনিটি পাওয়ার বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম।

দেখা গেছে, বেশিরভাগ মহিলাই ক্যলসিয়াম বা আয়রন পাওয়ার কম থাকার সমস্যায় ভোগেন। বিশেষ করে ভারতীয় মহিলাদের ক্ষেত্রে এটি বেশি দেখা যায়। তাছাড় গর্ভধারণের কারণেও ইমিউনিটি শক্তি কম থাকে অনেক মহিলার।

সেক্ষেত্রে x ক্রোমোজোম দুটি থাকাও সব সময় ফলদায়ক নয়।