চাকরির ইন্টারভিউ? রইল কয়েকটি টিপস

0
48

দ্য পিপল ডেস্কঃ শিক্ষা জীবন শেষ। এবার কর্মজীবনে প্রবেশের পালা। দিন যত এগোচ্ছে ততই কঠিন হচ্ছে চাকরির বাজার।

কী করে সেই কঠিন বিষয়টিকে সহজেই আয়ত্তে আনতে পারবেন তার জন্যই এই প্রতিবেদন।

চাকরির ইন্টারভিউ 01

প্রতিষ্ঠান ছোট হোক বা বড়, নিয়োগ পদ্ধতি দ্রুত বদলাচ্ছে সবক্ষেত্রেই । তবে যে কোন চাকরির জন্য ইন্টারভিউ এখনো একটি বড় বিষয়।

কোম্পানির নিয়োগকর্তারা মনে করেন, যে কোনও চাকরির ক্ষেত্রে ইন্টারভিউ বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

আপনি যে পদের জন্য আবেদন করেছেন, তার জন্য আপনি কতটা উপযুক্ত, তা একনজরে যাচাই করে নেওয়ার জন্যই যে কোন চাকরির শুরুতেই প্রার্থীর ইন্টারভিউ নেওয়া হয়।

বর্তমান সময়ে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে বাংলা ভাষার পাশাপাশি ইংরেজি ভাষার ব্যাপক চাহিদা।

চাকরির ইন্টারভিউ 02

ইন্টারভিউর মাধ্যমে একই সঙ্গে আপনার ভাষাগত দক্ষতা কতটা সেটাও যাচাই করে নেওয়া হয়।

নিয়মিত চর্চায় ঘাটতির কারণে অনেকেই ইংরেজিতে পড়তে ও লিখতে সমস্যার সম্মুখীন না হলেও ইংরেজিতে কনভারসেশন করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন।

ইন্টারভিউের ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে সতর্ক হতে হবে শব্দচয়ন ও বাক্যগঠনের ক্ষেত্রে।

মনে রাখা আবশ্যক, ইন্টারভিউ প্যানেলে যাঁরা রয়েছেন তাঁরা কেউই আপনার পরিচিত ব্যক্তি বা বন্ধু নন।

ইন্টারভিউর কয়েকটি কমন প্রশ্নঃ

  • Tell me about yourself (অর্থাৎ নিজের সম্পর্কে কিছু বলা)
  • What is your strength? (কোন কোন বিষয়ে আপনি দক্ষ)
  • What is your weakness? (আপনার দুর্বলতা)
  • Where do you see yourself after five years? (আগামী পাঁচ বছরে নিজেকে কোথায় দেখতে চান)
  • What do you know about our company? (কোম্পানি সম্পর্কে কি কি জানেন)
  • How well do you handle the change? (পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার উপায়)
চাকরির ইন্টারভিউ 03

উপরের ৬ টি প্রশ্ন যে কোনো চাকরির ইন্টারভিউর ক্ষেত্রেই কমন। এসব ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখা জরুরী।

কী কী বিষয় মনে রাখা আবশ্যক?

  • যেদিন আপনি ইন্টারভিউ দিতে যাবেন, তার আগের দিন সেই কোম্পানি সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নিন। এ ব্যাপারে আপনাকে সাহায্য করতে পারবে গুগল।
  • ইন্টারভিউ এর জন্য নির্ধারিত সময়ের কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে সেখানে পৌঁছানো উচিৎ। দেরি করে যাওয়া আপনার উপর একটা খারাপ ধারণা ফেলতে পারে।
  • পোশাক অবশ্যই মার্জিত এবং রুচিশীল হতে হবে। সঙ্গে আপনার পায়ের জুতাটিও। এলোমেলো চুলে কখনওই ইন্টারভিউ দিতে যাওয়া উচিৎ নয়। আগে দর্শনধারী, তারপর গুণ বিচারি— পুরোনো হলেও এ কথা এক্ষেত্রে বেশ প্রযোজ্য।
  • একদমই ঘাবড়ানো চলবে না। মনে রাখবেন আপনি আপনার যোগ্যতার খাতিরেই চাকরী পাবেন। আত্নবিশ্বাস নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিন। যদি না পারেন তাহলে সাবলীল ভাবে বলে দিন যে আপনি এই প্রশ্নের উত্তর জানেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here