দিনভর বন্ধ আউটডোর, শিকেয় স্বাস্থ্য পরিষেবা

0
156

দ্য পিপল ডেস্কঃ এনআরএস কাণ্ডের জেরে সারা রাজ্যের একাধিক মেডিক্যাল হাসপাতালে চলছে কর্মবিরতি। তার জেরে কার্যত শিকেয় উঠেছে স্বাস্থ্য পরিষেবা। এই প্রথম প্রায় গোটা দিন বন্ধ রাখা হয়েছে এনআরএস হাসপাতালের জরুরি পরিষেবা। চরমে উঠেছে রোগীদের ভোগান্তি।

গতকাল সোমবার এনআরএস হাসপাতালে রোগী মৃত্যু ঘিরে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়। রোগীর পরিবার ও জুনিয়র ডাক্তারদের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয় । তাদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয়। আহত হন জুনিয়র ডাক্তাররা।

গুরুতর জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ মুখোপাধ্যায়কে। প্রতিবাদে মঙ্গলবার দিনভর অবস্থান বিক্ষোভে বসেছেন জুনিয়র ডাক্তাররা।  

আজ সকালে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হাসপাতালে যান স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। ডেপুটি কমিশনার, হাসপাতাল সুপারের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক হয় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর। বৈঠকের পর সাংবাদিকদের তিনি জানান, আউটডোর বন্ধ থাকলেও জরুরি পরিষেবা যত দ্রুত সম্ভব চালু করা হবে।

কিন্তু স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর কথায়ও আন্দোলনে প্রভাব পড়েনি। অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয় নি। জরুরি পরিষেবা চালু হয়নি। ফলে চরম সমস্যায় পড়তে হয়েছে রোগী ও পরিবারকে । রোগী নিয়ে এসেও পরিষেবা না পেয়ে ফিরে যেতে হয়েছে বহু মানুষকে। চিকিৎসা না পেয়ে রাস্তাতেই মারা গিয়েছে বছর চারেকের এক শিশুও।

জুনিয়র ডাক্তারদের দাবি, মুখ্যমন্ত্রীকে এই ঘটনায় হস্তক্ষেপ করতে হবে। জুনিয়র ডাক্তারদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জের অভিযোগে এন্টালি থানার ওসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ডাক্তারদের গায়ে হাত তোলার জন্য মৃত রোগীর পরিবারের যে ৫ জনকে পুলিশ আটক করেছে তাদের যেন কোনওভাবেই ছেড়ে দেওয়া হয়।

এনআরএস কাণ্ডের প্রতিবাদে রাজ্যের একাধিক হাসপাতালে ১ ঘন্টার জন্য প্রতীকী অবস্থান বিক্ষোভে বসেন ডাক্তাররা। এসএসকেএম, কলকাতা মেডিক্যাল, সাগরদত্ত মেডিক্যাল, চিত্তরঞ্জন সেবা সদন, কল্যাণী জওহরলাল নেহরু হাসপাতালে কর্মবিরতিতে যান ডাক্তাররা। সেই সব হাসপাতালেও সমস্যায় পড়তে হয় রোগীদের।     

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here