দ্য পিপল ডেস্কঃ লাদাখ পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে শুক্রবার লেহ গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অঘোষিত সফরে শুক্রবার সকালেই লাদাখ সীমান্তে পৌঁছন তিনি।নরেন্দ্র মোদির এই সফরকে ভালো চোখে দেখেনি বেজিং।

সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে সীমান্ত সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে ভারত ও চিন। মোদির লাদাখ সফরে প্রতিক্রিয়া দিয়েছে বেজিং।

বেজিংয়ের ধারণা, এই ঘটনার জেরে বাড়তে পারে উত্তেজনা। লাদাখ সফরকে চিন ভালোভাবে না নিলেও বিজেপির সাংসদ ও অভিনেত্রী মোদিকেই সমর্থন জানিয়েছেন।

তিনি মোদের জন্য গর্ব প্রকাশ করে বলেছেন, মোদি লাদাখ যাওয়ায় এখন অনেক সুরক্ষিত মনে হচ্ছে। একজন ভারতীয় হিসেবে আমি গর্বিত। মোদিজিকে ভয় পেয়েছে চিন।

চিনকে এবার উপযুক্ত জবাব দিতে প্রস্তুত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।তবে এই ধারণা যে একেবারে অমূলক নয় তার প্রমাণ মিলেছে।

প্রধানমন্ত্রী মোদি লাদাখ পরিদর্শন এবং লেহতে বক্তিতা দেওয়ার পর বার্তা এসেছে চিনের তরফ থেকে। সীমান্তে উত্তেজনা প্রশমনের জন্য বার্তা দিয়েছেন ভারতে থাকা চিনের বিদেশমন্ত্রক।