দ্য পিপল ডেস্কঃ কাশ্মীরের পরিবেশ শান্ত রাখতে নয়া পদক্ষেপ নরেন্দ্র মোদির। কাশ্মীরে গুজব আটকাতে আটটি টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার ঘোষণা করল প্রধান মন্ত্রী। কাশ্মীর নিয়ে বিভিন্ন উস্কানি মূলক বার্তা প্রচার করায় এই পদক্ষেপ বলে জানানো হয় প্রধানমন্ত্রী তরফে।

আমাদের WHATSAPP গ্রুপে যুক্ত হতে ক্লিক করুন: Whatsapp

কাশ্মীর থেকে ১৪৪ ধারা বাতিল করার পর ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে ভূস্বর্গ। স্কুল কলেজ থেকে দোকান-পাঠ খোলা হচ্ছে। ভূস্বর্গে কোনও অপ্রীতিকর অবস্থার সৃষ্টি করতে নারাজ মোদি। সেই কারণে কাশ্মীরে আটটি টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জানান হয়, কাশ্মীরে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি করতে কিছু ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থেকে বার্তা ছাড়ানো হচ্ছে। একটি অ্যাকাউন্ট জম্মু কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা শহীদ আলী গিল গিনির বলে জানানো হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক তরফে। ভূয়ো অ্যাকাউন্ট গুলি শনাক্ত করনের পর নরেন্দ্র মোদি সেগুলি বন্ধ করার সিন্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান হয়।  

গত ৫ অগাস্ট কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়া হয়েছে। তার পর থেকেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য কাশ্মীরে সমস্ত ইন্টারনেট পরিষেবা , ল্যান্ড লাইন ফোন, টিভি সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয় কেন্দ্র তরফে। কাশ্মীরের রাজ্যপালের তরফে সকল রাজনৈতিক দল সহ সাধারণ মানুষকে কাশ্মীর নিয়ে ভূয়ো সংবাদ ছড়াতে বারন করেন। সম্প্রতি ফের ভুয়ো সংবাদ রুখতেই নরেন্দ্র মোদির এই নয়া পদক্ষেপ।