দ্য পিপল ডেস্ক-  প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে ফাঁসানো হয়েছে ,অভিযোগ তুলে আগেই দাবি জানিয়েছিলেন মরিয়ম নওয়াজ । এক ধাপ এগিয়ে এবার বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন শরিফ কন্যা । পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগ দাবি করলেন তিনি ।

সোমবার গভীর রাতে পাক-পাঞ্জাব প্রদেশের মান্ডি বাহাউদ্দিন শহরে মিছিল করেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে ও পিএমএল-এন-এর সহ সভাপতি মরিয়ম নওয়াজ ।

মিছিলে বিরোধী নেত্রী মরিয়ম বর্তমান পাক প্রধানমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করে জানান অবিলম্বে পদত্যাগ করা উচিত ইমরানের । মরিয়মের দাবি, গদিতে বসার বৈধ অধিকারই নেই পাক প্রধানমন্ত্রীর ।

ইমরানের নিন্দার পাশাপাশি শরিফ-কন্যার দাবি, খুব শীঘ্রই জেল থেকে ছাড়া পেয়ে যাবেন তাঁর বাবা । তার পরে তিনিই ফের পাক-প্রধানমন্ত্রীর গদিতে বসবেন । এ বার অনেক বেশি জন সমর্থন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরবে তাঁদের দল ।

ইমরান খান আর তাঁর সরকারের বিরুদ্ধে গত শনিবারই তোপ দেগেছিলেন শরিফ-কন্যা । সাংবাদিক বৈঠকে দাবি করেন, দুর্নীতি মামলায় ফাঁসিয়ে নওয়াজ শরিফকে জেলে পাঠানো হয়েছে ।

প্রসঙ্গত,গত বছর ডিসেম্বরে আল আজিজিয়া স্টিল দুর্নীতি মামলায় নওয়াজ শরিফ দোষী সাব্যস্ত হন । বিচারক আরশাদ মালিকের এজলাসে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দন্ডিত হন তিনি ।

বর্তমানে লাহৌরের কোট লাখপত জেলে বন্দি নওয়াজ । বিচারক আরশাদ উপরতলার চাপের কাছে একপ্রকার নতিস্বীকার করে নওয়াজকে জেলে পাঠান বলে শনিবারের সাংবাদিক বৈঠকে দাবি করেছিলেন মরিয়ম ।

নিজের দাবির সমর্থনে আরশাদ এবং নাসির বাট নামে পিএমএল-এন-এর এক সমর্থকের কথোপকথনের একটি ভিডিয়ো ক্লিপিংও প্রকাশ্যে এনেছিলেন মরিয়ম ।

যেখানে আরশাদকে বলতে শোনা গিয়েছে, চাপে পড়েই নওয়াজকে জেলে পাঠাতে বাধ্য হন তিনি । আরশাদ অবশ্য ওই ভিডিয়ো ভুয়ো বলে দাবি করে জানিয়েছেন, ওটা তাঁর বক্তব্যই নয় ।