বিমান নদীতে, যাত্রীদের কী হল!

0
62

দ্য পিপল ডেস্কঃ যাত্রী ভর্তি বিমান পড়ল নদীতে। বরাত জোরে বেঁচে গেলেন বিমানের ১৩৬জন যাত্রীই। বেঁচে গিয়ে যিশুকেই ধন্যবাদ দিচ্ছেন তাঁরা। দুর্ঘটনাটি ঘটেছে ফ্লোরিডার জ্যাকসনভিল বিমানবন্দর এলাকায়।

জ্যাকসনভিল নাভাল এয়ার স্টেশন সূত্রের খবর, বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি গুয়ান্তানামো নাভাল এয়ার স্টেশন থেকে যাত্রী নিয়ে জ্যাকসনভিল বিমানবন্দরে নামে স্থানীয় সময় রাত ৯.৪০ এ।যাত্রী ও বিমানকর্মী মিলিয়ে বিমানটিতে মোট ১৩৬জন ছিলেন। রানওয়েতে নামার পর বিমানের গতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি পাইলট। চাকা পিছলে রানওয়ে দিয়ে বিমান গিয়ে পড়ে সেন্ট জনস নদীতে। ভয়ে আর্ত চিতকার করতে থাকেন যাত্রীরা।

বিমান দুর্ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত চলে আসে উদ্ধারকারী দল। তড়িঘড়ি উদ্ধার করা হয় যাত্রী ও বিমানকর্মীদের। জানা গিয়েছে, বিমানটি মিয়ামি এয়ার ইন্টারন্যাশনালের। বিমানের গায়ে এই সংস্থার লোগোও রয়েছে।

এর আগে ওশিয়ানিয়ার দ্বীপ মাইক্রোনেশিয়ায়ও একই ঘটনা ঘটেছিল। এয়ার নিউ গিনির একটি এয়ারবাস রানওয়ে থেকে ছিটকে গিয়ে পড়েছিল হ্রদে। সেই সময়ও সব যাত্রী এবং বিমানকর্মীদের উদ্ধার করা হয়েছিল অক্ষত অবস্থায়। ফ্লোরিডার দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটিতেও কারও প্রাণহানি ঘটেনি।

কেন পাইলট বিমানটির গতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেন না? এ ব্যাপারে এখনও বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। তবে ঠিক কী কারণে পাইলট বিমানের গতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেন না, তা জানতে শুরু হয়েছে তদন্ত।

এদিকে, প্রাণে বেঁচে গিয়ে ঈশ্বরকেই ধন্যবাদ দিচ্ছেন যাত্রী এবং বিমানকর্মীরা। সাক্ষাত মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফিরে তাঁরাও বলছেন, রাখে যিশু মারে কে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here