দ্য পিপল ডেস্কঃ এলাকায় মদ, জুয়া সহ বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কাজের প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত হলেন অমিয় মণ্ডল, দেবাশিস রায় সহ চারজন প্রতিবাদী যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর থানার অন্তর্গত বেগমপুর এলাকায়।

দিনের পর দিন এলাকায় মদ, গাঁজা, জুয়ার ঠেক চালানোর অভিযোগ উঠেছিল প্রদীপ, নিতাই, গৌরদের বিরুদ্ধে। বাড়িতে পোল্ট্রি ফার্মের মধ্যেই এই বেআইনি কাজকর্ম চলত বলে দাবী স্থানীয় বাসিন্দাদের।

এমনকি তক্ষক পাচার, নারী পাচার সংক্রান্ত কাজ কর্মের সঙ্গে জড়িত ছিল বলে দাবী এলাকার মানুষদের। এই সমস্ত অসামাজিক কাজকর্মের প্রতিবাদ গত কয়েকদিন ধরেই এলাকার মানুষজন করে আসছেন। সেই কারণে দিন তিনেক আগেও প্রতিবাদীদের উপর চড়াও হয়ে মারধোর করে অভিযুক্তরা। ঘটনায় বারুইপুর থানায় অভিযোগও দায়ের হয়।

এলাকা থেকে এই সমস্ত অসামাজিক কাজকর্ম বন্ধের দাবিতে গণস্বাক্ষর করে একটা স্মারকলিপি প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের দেওয়ার জন্য উদ্যোগী হন অমিয় মণ্ডল, দেবাশিস রায়রা। এই বিষয়টি জানতে পেরেই মঙ্গলবার রাতে এই প্রতিবাদীদের উপর চরাও হয় অভিযুক্তরা।

দলবল নিয়ে এসে বেধড়ক মারধোর করা হয় তাদেরকে। রাতেই এলাকার বাসিন্দারা আক্রান্তদের উদ্ধার করে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে চিকিৎসার পর বারুইপুর থানায় এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্তরা। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে এই ঘটনায় বুধবার সকাল পর্যন্ত কাউকে আটক বা গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এই ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে এলাকায় দুষ্কৃতি কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত প্রদীপ গায়েন, গৌর গায়েন, নিতাই গায়েনদের দিকে।

অভিজুক্তদের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার রাতেই বারুইপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্তরা। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বারুইপুর থানার পুলিশ। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here