দ্য পিপল ডেস্কঃ  তিন তালাক বিল পাশ হলেও মুসলিম সম্প্রদায়ের মহিলাদের উপর তিন তালাক নিয়ে অত্যাচার ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এবার ফোনে তিন তালাক দিয়ে মহিলাকে শ্বশুরবাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া অভিযোগ উঠল বাড়ির সদস্যদের বিরুদ্ধে। ঘটনার জেরে দৌলাতাবাদ থানার পুলিশের দারস্থ হলেন গৃহবধূ।

যদিও পুলিশ এই বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন না বলে অভিযোগ করলেন নির্যাতিতার মহিলা। সোমবার সকাল থেকেই দৌলাতাবাদ থানার সামনে দুই ছোট শিশু সন্তান নিয়ে সুবিচার আশায় দিনভর কাটিয়ে দিলেন নির্যাতিতা গৃহবধূ স্বান্তনা বিবি।

নির্যাতিতা গৃহবধূর অভিযোগ, দৌলতাবাদ থানার সরষাবাদ এলাকার বাসিন্দা পেশায় দিন মজুর গোলাম সেখের সঙ্গে কয়েক বছর আগে বিয়ে হয় জলঙ্গীর বাসিন্দা স্বান্তনা বিবির। তার অভিযোগ, বেশ কিছু দিন ধরেই শ্বশুর বাড়িতে বিভিন্ন কারণে মানষিক ও শারিরীক ভাবে নির্যাতিত হতে হচ্ছিল তাকে।

অভিযোগ সোমবার সকালে গোলাম সেখ ফোনে স্বান্তনা বিবিকে কটূক্তি করে এবং ফোনেই তিন তালাক দেন। তার পরেই শ্বশুর বাড়ি থেকে শ্বশুর কালাম সেখ বাড়ি বের করে দেয় বলে অভিযোগ। ঘটনার প্রতিবাদে গ্রামের মোড়লদের কাছে জানানো হলেও কোন সুবিচার পাননি নির্যাতিতা গৃহবধূ।

সম্প্রতি, কেন্দ্রের তরফে আনা হয়েছে তিন তালাক বিল। তাই গোলাম শেখের ফোন মারফৎ দেওয়া তিন তালাকের প্রতিবাদ জানিয়ে দৌলাতাবাদ থানায় পাঁচ বছরের কন্যা সন্তান গোলাপী খাতুন ও তিন বছরের পুত্র সন্তান শামিম সেখকে নিয়ে ধর্নায় বসেন তিনি।

তার অভিযোগ বারংবার এই বিষয়ে থানায় অভিযোগ জানালেও কোনো ব্যবস্থাই নেয়নি তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here