দ্য পিপল ডেস্কঃ এক স্বাস্থ্য কর্মীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদহের চাঁচলে। ওই ঘটনায় খুনের অভিযোগ তুলেছেন পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে চাঁচল থানার বারোগাছিয়া এলাকায়। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে চাঁচল থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত যুবকের নাম আবু তালহা (২২)। বাড়ি কলিয়াচক থানার জালালপুর গ্রামপঞ্চায়েতের ফতেখানি গ্রামে। প্রায় ৮ মাস আগে চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে গ্রুপ ডি-তে চাকরি পায়। মাত্র পাঁচ দিন আগেই বাড়ি থেকে কাজে যোগ দেয়।  

বৃহস্পতিবার রাত বারোটা নাগাদ তালহার সহকর্মী আনোয়ারের মোবাইলে একটি ভিডিও পাঠায় এবং তাতে সে আত্মহত্যার কথা জানায়। রাতে আনোয়ারের নাইট ডিউটি ছিল।

আনোয়ার তখন বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানায় এবং তড়িঘড়ি করে ভাড়াবাড়িতে ছুটে এসে দেখে গলায় ইলেক্ট্রিকের তার পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে সে।

এর পরই চাঁচল থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে। মৃতের পরিবারের লোকেরা খুনের অভিযোগ তুলছে। এ নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here