The People Tv Digital Desk: কোভিড আবহে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে বইমেলা স্থগিত রাখার আর্জি গিল্ডের।

উদ্বেগজনক করোনা পরিস্থিতির জেরে আপাতত স্থগিত ২০২২ কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। সেক্ষেত্রে এই পরিস্থিতিতে বইমেলার ভবিষ্যত কি? সরকার চাইলেই বইমেলা পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারে, এই মর্মেই মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে এমন প্রস্তাব দেওয়ারই সিদ্ধান্ত নিল বুকসেলার্স অ্যান্ড পাবলিশার্স গিল্ড। পূর্বেই কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলার দিনক্ষণ ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানুয়ারিতেই সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে ৩১ জানুয়ারি থেকে ১৩ ফ্রেরুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ২০২২-এর বইমেলা।

Source : Internet

এবারের থিম কান্ট্রি বাংলাদেশ। বইমেলায় এবছর উদযাপিত হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্ম শতবর্ষ। এছাড়াও বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু-র ১২৫তম জন্মবর্ষ, সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষ এবং ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর পালিত হওয়ার কথা রয়েছে বইমেলায়।

গত বছর মহামারীর কারণে বাতিল হয়ে যায় বইমেলা। তাই এবছর করোনা আবহে ভিড় নিয়ন্ত্রণ ও কোভিড বিধি নিয়ে অতিসতর্ক আয়োজকরা। বুকসেলার্স অ্যান্ড পাবলিশার্স গিল্ডের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বইমেলায় প্রবেশের ক্ষেত্রে ডাবল ডোজ ভ্যাকসিনেশন ও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। শারীরিক দূরত্ব ছাড়াও মেনে চলতে হবে অন্যান্য কোভিড বিধিও।

Source : Internet

গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব চট্টোপাধ্য়ায় জানিয়েছেন, ‘আমরা সমস্ত আয়োজন করে রেখেছি। মানুষজনকেও বলছি, মেলায় প্রবেশ করতে গেলে ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নেওয়া আবশ্যক। কিন্তু সেটাই বা কতটা নির্ভরযোগ্য বা যুক্তিযুক্ত হবে? তা নিয়ে চিন্তায় আছি।’ তবে, যেভাবেই হোক বইমেলা আয়োজন করা যে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়, সেকথাও জানিয়েছেন তিনি।