দ্য পিপল ডেস্কঃ করোনার থাবা এবার বস্তি এলাকাতেও। এই প্রথম মুম্বইয়ের ধারাবি এলাকায় একজনের শরীরে পাওয়া গিয়েছে করোনার জীবানু। ৫৬ বছরের লোকটি বর্তমানে সিওন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।  

স্থানীয় সূত্রের খবর, তাঁর পরিবারে ১০ জন সদস্য রয়েছে। তাঁদের সকলকেই কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাঁর বাড়িতে সময়মতো খাবার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছে দিচ্ছেন স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা। 

উল্লেখ্য, ভারতে করোনা আক্রান্তের পরিসংখ্যানে প্রথমে রয়েছে মহারাষ্ট্র। মুম্বই তাতে রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। 

প্রসঙ্গত, মুম্বইয়ের জনবহুল এলাকাগুলির মধ্যে ধারাবি অন্যতম। সেখানে প্রায় ১৫ লক্ষ মানুষ বাস করেন। সুতরাং, একজন করোনা আক্রান্ত হলে তার রূপ যে কতটা ভয়ংকর হতে পারে। তা ভেবে কপালে ভাঁজ পড়েছে প্রশাসনের। 

এদিকে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রালয়ের মতে ভারত এখনও তৃতীয় স্তরে প্রবেশ করেনি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)এর মতে আমেরিকা, ইটালির মতো ভারতও যদি সংক্রমণের তৃতীয় স্তরে পৌঁছায়, তাহলে মৃত্যু হতে পারে প্রায় ৩০ কোটি মানুষের।

আর ধারাবির মতো এলাকায় করোনার জীবানু মেলায় সিঁদুরে মেঘ দেখছে অনেকেই