দ্য পিপল ডেস্কঃ চলতি বছরের ২৩ জুলাই, প্রায় মাস দুয়েক আগে দেশের প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি পাঠিয়েছিলেন অপর্ণা সেন, মনিরত্নম, শুভা মুদগল সহ ৫০ জন বুদ্ধিজীবী। একারণে বিহারের মুজজফরপুরের সদর থানায় এফআইআর করা হল তাঁদের বিরুদ্ধে।

প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি পাঠানোর পরদিনই আদালতে মামলা দায়ের করেন বিহারের এক আইনজীবী সুধীর কুমার ওঝা। এই চিঠির মাধ্যমে দেশের প্রধানমন্ত্রীর ভাবমূর্তিকে কালিমালিপ্ত করা হয়েছে অভিযোগ তোলেন তিনি।

এই মামলার শুনানিতে চিঠিতে স্বাক্ষর করা ৫০ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দিয়েছিলেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সূর্যকান্ত তিওয়ারি।

সেই মতো বিহারের মুজফরপুরের সদর থানায় এফআইআর দায়ের করা হয় ৫০ জন বুদ্ধিজীবীদের বিরুদ্ধে। তবে এই বিষয়ে বুদ্ধিজীবীদের মতামত এখনও মেলেনি।  

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি পাঠানো নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল এ রাজ্য থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত। আলোচনার মুখে পড়েছিল বিজেপি দল এমনকী ধর্মীয় উগ্রবাদ সহ একাধিক বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হন বুদ্ধিজীবীরা।

যদিও, এই চিঠির পরে আরও একটি চিঠিও পাঠানো হয় প্রধানমন্ত্রী কাছে, যেখানে সই করেছিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত সহ ৬১ জন। সেখানে বলা হয়েছিল, একদল মানুষ বিশেষ পক্ষপাতিত্বের কারণে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি পাঠিয়েছেন। আমরা বিস্মিত।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here