দ্য পিপল ডেস্কঃ আগামী তিন ঘন্টায় বজ্রপাত সহ ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয় দফতর।সূত্রের খবর, বৃষ্টি হবে উত্তরবঙ্গ সহ দক্ষিনবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায়। উপকূলবর্তী এলাকায় মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।  

আমাদের WHATSAPP গ্রুপে যুক্ত হতে ক্লিক করুন: Whatsapp

হাওয়া অফিস সূত্রে আগেই জানানো হয়েছিল, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের ফলে রবিবার থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়াগায় বৃষ্টিপাত হতে পারে। চলবে বুধবার পর্যন্ত। রবিবার সন্ধ্যা বেলা থেকেই পুরুলিয়ায় ব্যাপক ঝড় বৃষ্টি শুরু হয়। বাজ পড়ে মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। আহত হয়েছেন ৩ জন। অন্যদিকে সোমবারও দুপুরে আচমকাই বাজ পড়তে শুরু করে গোসাবা ব্লকের সুন্দরবন কোস্টাল থানার অন্তর্গত সাতজেলিয়া গ্রামে। সে সময় ধান জমিতে কাজ করছিলেন শ্রীবাস মৃধা এবং তাঁর ছেলে হরিপদ। আচমকা বাজ পড়ায় ঘটনাস্থলেই মারা যান বাবা এবং ছেলে। 

সোমবার কলকাতায় তেমন বৃষ্টি না হলেও দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় বজ্রপাত সহ বৃষ্টি দেখা গেছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে দক্ষিনবঙ্গের একাধিক জায়গা সহ কলকাতায় দেখা মিলেছে বৃষ্টির। বেলা গড়াতেই ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলে আগেই জানানো হয়েছিস হাওয়া অফিসের তরফে। তবে বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপের অভিমুখ উত্তর-পশ্চিম ঝাড়খণ্ডের দিকে। তাই ২৪ ঘণ্টা পর থেকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির প্রভাব কমতে পারে বলে অনুমান আবহবিদদের।

মঙ্গলবার কলকাতার পাশাপাশি দক্ষিনবঙ্গের পুরুলিয়া, বীরভূম, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, নদিয়া, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট এই নিন্মচাপের কারণে দীঘা, মন্দারমণি সহ সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকাতেও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

নিন্মচাপের কারণে বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে উত্তরবঙ্গে। মালদা, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং ও কালিম্পং-এ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানানো হয়েছে। আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, নিন্মচাপের কারণে উত্তরবঙ্গে মাঝারি থেকে স্বল্প বৃষ্টি হতে পারে।