দ্য পিপল ডেস্কঃ দেশজুড়ে এই মূহূর্তে সকলের মুখে একমাত্র আলোচ্য বিষয় করোনা ভাইরাস। সেইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মগুলিতে ঘুরপাক খাচ্ছে একরাশ গুজব। কিন্তু একাধিক ডাক্তারের মতে সেই সমস্ত গুজব ছড়ানো বন্ধ হওয়া উচিৎ। দেখে নিন করোনা আবহে কি করবেন আর কি করবেন না।

মাস্ক পড়ুন সবাই

সুস্থ মানুষের মাস্ক পড়ার কোনও কারণ নেই। N95 মাস্ক ডাক্তার নার্স এবং করোনা আক্রান্ত রোগীদের ব্যবহারের জন্য।

গরম জল বা অ্যালকোহল

গরম জল বা অ্যালকোহল কোনওটাই করোনা প্রতিরোধে সক্ষম নয়।

বর্ষাকালে করোনার ভাইরাস নষ্ট হয়ে যায়

আবহাওয়া পরিবর্তনের সঙ্গে করোনার কোনও সম্পর্কে নেই। শীত-গ্রীষ্ম-বর্ষা সবকালেই হতে পারে করোনা।

মাংসে না

করোনা মানব দেহ থেকে ছড়ায়। এর সংক্রমণে কোনও পশুর হাত নেই। সুতরাং, মাংস খাওয়ায় কোনও বাধা নেই। বরং এই সময় শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বেশি পরিমাণ প্রোটিন খাওয়া উচিৎ।

বাড়িতে খাদ্য পণ্য মজুত করুন          

একদমই নয়। ডাক্তারদের মতে বেশি দিনের পুরনো খাবার খেলে শরীর খারাপ হতে পারে।

হাঁচি-কাশি পড়লেই হাসপাতাল

সামান্য হাঁচি-কাশি জন্য হাসপাতাল ছোটার কোনও দরকার নেই। সাধারণ ফ্লু-এর জন্যও সামান্য হাঁচি পড়তে পারে।

রসুন খেলে হবে না করোনা

রসুন খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়লেও করোনা প্রতিরোধের এখনও কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

গরম জলে লবন দিয়ে গার্গেল

সাধারণ ঠাণ্ডা লাগলে কিংবা সর্দি-কাশি হলে গরম জলে লবন দিয়ে গার্গেল করলে আরাম পাওয়া যায়। কিন্তু এর সঙ্গে করোনা প্রতিরোধের কোনও সম্ভাবনা নেই।