দ্য পিপল ডেস্কঃ চুলের সমস্যার হাজারও প্রতিকার থাকলেও সমস্যা তার জায়গাতেই থেকে যায়।

আয়ুর্বেদিক, ভেষজ বিভিন্ন শ্যাম্পু, তেল ব্যবহার করা সত্তেও চুলের সমস্যা যায় না।

কারণ শুধুমাত্র তেল বা শ্যাম্পু নয়, সমস্যা থাকে আমাদের ব্যবহারের পদ্ধতিতেই।

১. সঠিক শ্যাম্পুঃ কোন ধরনের শ্যাম্পুর জন্য কি শ্যাম্পু ঠিকঠাক সেটা বুঝে উঠতেই ভুল হয়ে যায় বেশিরভাগ মানুষের।

তাই চুলের প্রকৃতি অনুযায়ী শ্যাম্পু বাছাই ও ব্যবহার করা দরকার।

২. রাসায়নিকযুক্ত শ্যাম্পুঃ অতিরিক্ত রাসায়নিকযুক্ত তেল বা শ্যাম্পু দুটোই চুলের জন্য ক্ষতিকর।
সেকারণে অপেক্ষাকৃত কম রাসায়নিক, কম ক্ষার যুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।

৩. রোজ শ্যাম্পুঃ কাজ হোক বা পড়াশোনা এখন সবাইকেই প্রত্যেকদিন বাইরে বেরতে হয়। ফলে চুল পরিষ্কার করতে রোজ শ্যাম্পু করেন অনেকেই।

কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোজ শ্যাম্পু করা একেবারেই ঠিক নয়। এতে চুলের পুষ্টি ও স্বাভাবিক ঔজ্জ্বল্য কমে যায়। ফলে চুল তাড়াতাড়ি রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যায়।

৪. চুলের দিকে বেশি নজরঃ অনেকেই শ্যাম্পু করার সময় মাথার ত্বকের দিকে নজর দিতেই ভুলে যান। শ্যাম্পু ব্যবহার করেন চুলে।

আসলে শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হয় মাথার ত্বকে। কারণ রাস্তার ধুলো, ময়লা ত্বকেই জমে থাকে। আর ত্বক পরিষ্কার না করা হলে সেখান থেকে খুশকি, ফাঙ্গাস ইত্যাদির সমস্যা দেখা দেয়।

৫. জোরে ঘষাঃ চুল ও হোক বা মাথার ত্বক শ্যাম্পু করার সময় বেশি জোরে ঘষা উচিত নয়। এতে চুলের গোড়া নরম হয়ে যায় এবং চুল পড়তে থাকে।

শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই কন্ডিশনার করা উচিত।