পার্শ্ব শিক্ষকদের ধরনা মঞ্চ থেকে রাজ্য সরকারকে তোপ দিলীপের

দ্য পিপল ডেস্কঃ রাজ্যে কোনও গনতন্ত্র নেই। শিক্ষক-শিক্ষিকরা কোনও সম্মান পাচ্ছেন না। ভেঙে পড়েছে রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থার মেরুদণ্ড। সরকারের তরফে কোনও রকম আলোচনাই করছে না। শনিবার পার্শ্ব শিক্ষকদের ধরনা মঞ্চ -এ এসে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

রাজ্যপালের পর পার্শ্ব শিক্ষকদের পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থার সমালোচনা করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, শিক্ষকদের যোগ্য সম্মান দিয়ে যত দ্রুত সম্ভব ক্লাসরুমে ফেরানো উচিত।

রাজ্যে শিক্ষকদের কোনও নিরাপত্তা নেই। এছাড়া কেন্দ্রের দেওয়া পুরো টাকাটা দেওয়ার কথাও জানান তিনি।

শুক্রবার পার্শ্ব শিক্ষকদের ধরনা মঞ্চ -এ উপস্থিত হয়েছিলেন হুগলি লোকসভার বিজয়ী সাংসদ লকেট চ্যাটার্জি। পার্লামেন্টে আগামী অধিবেশনে বিষয়টিকে নিয়ে পর্যালোচনা করার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি

পাশাপাশি পার্শ্ব শিক্ষকদের পাশে থাকার কথাও বলেন সাংসদ লকেট চ্যাটার্জি।   

আরও পড়ুনঃ অষ্টম শ্রেনীর পাঠ্য বইতে সাপ বিষয়ক অধ্যায়

এছাড়াও, পার্শ্ব শিক্ষকদের ধর্না মঞ্চ -এ দেখা গিয়েছিল সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রাক্তন বিধানগরের বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত এবং বাম পরিষদিয় নেতা সুজন চক্রবর্তী।  

প্রসঙ্গত, গত সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের অনুমতিতে বিকাশভবন চত্ত্বরে কম বেতনের প্রতিবাদে অনশনে বসেন পার্শ্ব শিক্ষকরা।

মোট ৫০ জন শিক্ষকরা মিলে এই অনশন করেন।     

দেশের অন্যান্য রাজ্যের উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বেতনের তুলনায় এখানকার শিক্ষকদের বেতন কম।

শিক্ষকদের দাবি, কেন্দ্রীয় সরকারের থেকে ৬০ শতাংশ দেওয়া হয়। বাকি ৪০ শতাংশ দেয় রাজ্য সরকার।

তাহলে কেন অন্যান্য রাজ্যের শিক্ষকদের তুলনায় আমাদের বেতন কম।

এই নিয়ে সরব হন পার্শ্বশিক্ষকরা। এখানেও কাটমানি হচ্ছে কি না, সেই প্রশ্ন তুলেছে অনেকেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here