সীমান্তে অচলাবস্থা,সেনাবাহিনীর কাছে ব্যারেট স্নাইপার রাইফেল

0
53

দ্য পিপল ডেস্ক –সীমান্তে অচলাবস্থার জেরে ভারত ব্যারেট এম ৯৫.৫০ বিএমজি এবং ব্যারেট্টা স্করপিও টিজিটি ভিক্টরিয়া .৩৩৮ কিনেছে।

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের অলচলাবস্থা নিয়ন্ত্রনের জন্যই এই স্নাইপার রাইফেল গুলো ব্যবহার করা হবে বলে জানা যাচ্ছে।

সেনাবাহিনীর হাতে ব্যারেট স্নাইপার 01

সেনাবাহিনীর হাতে ব্যারেট স্নাইপার

সীমান্ত উপত্যকায় অচলাবস্থার জেরে ভারত ইতিমধ্যেই স্নাইপার রাইফেল কিনে ফেলেছে। বর্তমানে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে লং রেঞ্জের স্নাইপার রয়েছে।

ফলে শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে দূর থেকে নজর রাখা এবং প্রয়োজনে আঘাত হানা খুবই সহজ সাধ্য হবে।

গত বছর জম্মু-কাশ্মীরে পাকিস্তান সংলগ্ন লাইন অব কন্ট্রোলে ৬ জন ভারতীয় জাওয়ান স্নাইপার আক্রমনে শহিদ হন।

সেনাবাহিনীর হাতে ব্যারেট স্নাইপার 03

এরপর ২০১৭ সালে জাওয়ানদের শহিদের সংখ্যাটা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পায় । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে যুদ্ধকালিন তৎপরতায় স্নাইপার কেনার সিধান্ত নিল ভারত।

সেনাবাহিনীর হাতে ব্যারেট স্নাইপার, বন্দুকের বিশেষত্ব

নতুন রাইফেল গুলির নাম হল যথাক্রমে ব্যারেট এম ৯৫.৫০ বিএমজি এবং ব্যারেট্টা স্করপিও টিজিটি ভিক্টোরিয়া .৩৩৮ লাপুয়া ম্যাগনাম।

এগুলি একটি বিশেষ ধরনের স্নাইপার রাইফেল । স্নাইপার রাইফেলগুলির ফায়ার রেঞ্জ ১.৫ থেকে ১.৮ কিলোমিটার ।

ফলে, অনায়াসেই দূরে থাকা শত্রুর আক্রমণকে পরাস্ত করা যাবে।

সেনাবাহিনীর হাতে ব্যারেট স্নাইপার 03

আমেরিকার তৈরি ব্যারেট -এর রেঞ্জ ১৮০০ মিটার এবং ইটালিতে তৈরি ব্যারেট -এর রেঞ্জ ১৫০০ মিটার । দুই ধরনের স্নাইপার রাইফেল বেশির ভাগ ক্ষেত্রে স্পেশাল ফোর্সে ব্যবহৃত হয় ।

আরও পড়ুন

সুত্রের খবর, লাইন অব কন্ট্রোলের উপরের দিকে যে সমস্ত শত্রু অবস্থান করছে, আপতকালিন পরিস্থিতে তাদের দমন করার জন্য ব্যারেট স্নাইপার রাইফেল দারুন কার্যকারী ভূমিকা পালন করবে ।

সেনাবাহিনীর হাতে ব্যারেট স্নাইপার 04

গম্ভীর অবস্থার সমাধানের জন্য ৩০ টি স্নাইপার কিনেছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর নর্দান কামান্ড। ইতিমধ্যেই স্নাইপার ট্রেনিং চালু হয়ে গিয়েছে ।

একথা জানিয়েছে আর্মি অফিসিয়াল। শনিবারই স্নাইপার রাইফেল কেনা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তাঁরা।

আর্মি অফিসিয়াল সূত্রে আরও জানা গেছে, নর্দান কামান্ড -এর চিফ সংবিধানের স্পেশাল পাওয়ার -এর ভিত্তিতে এই স্নাইপার গুলি কেনার অনুমতি পেয়েছেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here