দ্য পিপল ডেস্কঃ ভারতের অভিনয়ের সর্বোচ্চ সম্মান দাদা সাহেব ফালকে পেলেন অমিতাভ বচ্চন। সারা জীবনের কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ এই সম্মান পেলেন ৭৭ বছরের বর্ষীয়ান এই অভিনেতা।

রবিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অমিতাভ বচ্চনের হাতে এই সম্মান তুলে দেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্ত্রী জয়া বচ্চন ও পুত্র অভিষেক বচ্চন।

সম্মাননার পর বক্তব্য রাখতে গিয়ে সিনে জগতের এই আইকন রসিকতা করে বলেন, যখন এই সম্মান প্রাপক হিসেবে নিজের নাম শুনি মনে হয়েছিল লোকজন বলতে শুরু করবে অনেক কাজ হয়েছে এবার বাড়িতে বসে আরাম করুন।

কিন্তু তিনি যে এখনই থামতে চান না তাও মনে করিয়ে দিতে ভুললেন না হার্টথ্রব অমিতাভ। বলেন, অনেক কাজ বাকি আছে, করতে হবে।

৫০ বছরের বেশি সময় ধরে অভিনয় করে যাওয়া ভারতীয় ছবির মহানায়কের পথ চলা শুরু হয়েছিল ১০৬০ সালে।

বিভিন্ন চরিত্রে নিঁখুত অভিনয় একদিকে তাঁকে যেমন সফল অভিনেতা হিসেবে জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে তেমনই সাধারণ মানুষের ঘরের লোক হয়ে উঠেছেন তিনি।

দেশের একাধিক পুরস্কার, সম্মানের পাশাপাশি পেয়েছেন বিদেশি সম্মাননা। পেয়েছেন ফরাসি সম্মাননা লেজিওঁ দ্য নর।

ফরাসি পরিচালক ফ্রাঁসোয়া তাঁকে একক ব্যক্তি চলচ্চিত্র শিল্প বলেও অভিহিত করেন।

শিল্পকলায় অবদানের জন্য ১৯৮৪ সালে  পান ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রী, ২০০১ সালে তৃতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা  হিসেবে পান পদ্মভূষণ।

২০১৫ সালে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা হিসেবে পান পদ্মবিভূষণ।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে দেশের সর্বোচ্চ বিনোদন সম্মান প্রাপক হিসেবে কিংবদন্তী অমিতাভ বচ্চনের নাম ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here