দ্য পিপল ডেস্কঃ বিনামূল্যে হল অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি।
রাজ্য সরকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সিপিআইএম নেতার গলায়।
স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব অব্যাহত রাজনৈতিক মহলে।
তার মাঝেই নারায়ণগড়ের এক বৃদ্ধ স্বাস্থ্যসাথীর পরিষেবা পেয়ে খুশি।
সরকারের এই প্রকল্পকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন নারায়নগড় ব্লকের মকরামপুর পঞ্চায়েত এলাকার গুঁড়ি বাটিটাকি গ্রামের বাসিন্দা শক্তিপদ ভুঁইয়া।
সূত্রের খবর, বেশ কয়েকদিন ধরেই বুকে ব্যথা অনুভব করছিলেন তিনি।
কলকাতার সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে হার্ট ব্লকেজ নিয়ে গত ৭ জানুয়ারি ভর্তি হয়েছিলেন শক্তিপদ ভুইয়াঁ। ১০ জানুয়ারি হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান।
হাসপাতালে চিকিৎসার বিল দেখা যায় প্রায় ১ লক্ষ ৫ হাজার টাকা।
হতদরিদ্র কৃষক পরিবারটির পক্ষে এই বিল মেটানো সম্ভব ছিল না।
স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের জেরে কোভিড টেস্ট, তিনদিনের বেড ও গাড়ি ভাড়া ছাড়া হাসপাতাল আর কোনও খরচ নেয়নি বলে জানা গিয়েছে।
প্রসঙ্গত, বাম আমলে দুটি পর্যায়ে পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য ছিলেন শক্তিপদবাবু।
বিরোধী দল সিপিআইএম এর নির্বাচিত সদস্যও তিনি। তবে দীর্ঘদিন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যোগাযোগ নেই তাঁর।
শক্তিপদবাবুর কথায়, আমার মতো দরিদ্র পরিবারগুলি চিকিৎসার বিষয়ে খুব উপকৃত হবে।
আমি চাই ফের মানবিক এই সরকার ক্ষমতায় আসুক।