দ্য পিপল ডেস্কঃ আচমকাই কেউ কেশে উঠলেন। সকলের সন্ধিগ্ন চোখ তাঁর দিকে। তাহলে কি করোনা সংক্রমণ? এই পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণ দিতে এগিয়ে এলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই পড়ুয়া।

সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্ট, গা-হাত-পা ব্যথা, মাথাব্যথা করোনা সংক্রমণের সাধারণ উপসর্গ। এই উপসর্গগুলো দেখা দিলে তাকে চিকিৎসকের কাছে পরামর্শ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। করোনা পরীক্ষাও করা হয়।

কিন্তু বেশ কয়েকদিন ধরে বাংলার আবহাওয়ার পরিবর্তন চলছে। এরফলে সর্দি কাশি, মাথাব্যথা লেগেই রয়েছে। সাধারণ কাশি হলে মানুষ বুঝবে কি করে করোনা নাকি সাধারণ কাশি?

এসব সমস্যার নিমেষে মুশকিল আসান করতে অভিব যন্ত্র আবিষ্কার করেছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রনিক্স ও টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের দুই পড়ুয়া অন্বেষা ব্যানার্জী ও আঁচল নিলহানি ।

যন্ত্রটি করোনা সংক্রমণের প্রথম ধাপকে শনাক্ত করতে পারবে। এর ফলে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা অনেকটাই কমবে। যন্ত্রটি ব্যবহার হবে কোয়ারিন্টন সেন্টার, শিক্ষাঙ্গণ ও অফিসে।

শিক্ষকদের মতে, ড্রোনের মাধ্যমে যন্ত্রটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এই যন্ত্রটি বাজারে এলে সংক্রমণ পরীক্ষা করার ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হবে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই যন্ত্রের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা এখনও হয়নি। কিন্তু চিকিৎসকদের একাংশ এর প্রশংসা করেছেন। পাশাপাশি আইএমসিআর থেকেও ইতিবাচক সাড়া মিলেছে।

ক্লিনিক্যাল টেস্টের পর সবুজসংকেত মিললেই যন্ত্রটি বাজারে আসবে। করোনাকে হার মানতেই হবে!