দ্য পিপল ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের জেরে জারি হয়েছে বিধিনিষেধ। ছাপ পড়েছে উৎসব অনুষ্ঠানে।

ব্যতিক্রম নয় ইদের নামাজও। তাই এবার মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের বিভিন্ন এলাকায় বাড়িতে নামাজ পড়া হল। জেলা পরিষদ শিশু নারী ও ত্রাণ কর্মাধ্যক্ষের মর্জিনা খাতুন বাড়িতে নামাজ পড়লেন পরিবারের সঙ্গে।


মালদহ জেলা পরিষদের নারী শিশু উন্নয়ন ও ত্রাণ কর্মাধ্যক্ষ মর্জিনা খাতুন এর পরিবার হরিশ্চন্দ্রপুর থানার বাংরুয়া গ্রামে করোনা অবহে সমজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদগাহে নয় নিজ বাড়িতেই পরিবারের সকলে মিলে ঈদের নামাজ পাঠ করলেন।


মর্জিনা খাতুন জানালেন, সরকারের নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ পড়া হয়। পরিবারের সবাই নামাজ পাঠ করেন।

তবে প্রত্যেক গ্রামে একটা জামাত হত একসঙ্গে নামাজ পড়ার অনুভূতি আলাদাই।

নামাজ শেষে আলিঙ্গন করা ও আনন্দ উপভোগ করা হতো কিন্তু বর্তমানে করোনা দূরীকরণ করার লক্ষ্যে ছোট ছোট জামাত করে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার প্রতিটা গ্রামের মানুষ পবিত্র ইদ উল আজহার নামাজ পাঠ করলেন এবং একে অপরে খুশির জোয়ারে ভেসে উঠলেন।


এদিন মর্জিনা খাতুন সাধারণ মানুষের মধ্যে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করলেন।