দ্য পিপল ডেস্কঃ ফের সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান। নৌসেরা সেক্টরে পাক গোলায় গুরুতর জখম অবস্থায় উধমপুর সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে নৈক সুভাষ থাপা নামে এক জওয়ানকে।

প্রায়  প্রত্যেকদিন সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে সীমান্তে এপারে গুলি, মর্টার ছোঁড়ে পাক সেনা।

শুক্রবার ভারতীয় সেনার পক্ষ থেকে প্রেস বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে পাকিস্তানের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘনের সংখ্যা।

চলতি বছরে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত ২৩১৭ বার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করেছে পাক সেনা। ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর অপারেশনে নিকেশ হয়েছে ১৪৭ জঙ্গি।

২০১৮ য় পাক সেনার পক্ষ থেকে সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করা হয়েছে ১৬২৯ বার।

ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিকেশ হয়েছে ২৫৪ জঙ্গি। অর্থাৎ, ২ বছরে মোট ৩৯৪৬ বার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করেছে পাক সেনা।

পরিসংখ্যানে স্পষ্ট, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে যতই সমালোচনার মুখে পড়ুক ইমরান খান বা পাক সরকার, তাতে তাদের কিছুই যায় আসে না। ভারতের বিরুদ্ধে হিংসা অব্যাহতই রেখে গেছে পাকিস্তান।

একদিকে সেনা বাহিনী, অন্যদিকে জঙ্গি বাহিনী, দুই দিক থেকেই ভারতকে আক্রমণ করতে, নাশকতামূলক কাজ করতে সব সময় চেষ্টা করে চলেছে পাকিস্তান।

উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দরবারে ভারতের বিরুদ্ধে নালিশ ঠুকেছে পাকিস্তান।

জম্মু-কাশ্মীর অঞ্চলের মানুষের অধিকার খর্ব করা হচ্ছে বলে হালে পানি পেতে চেয়েছে। কিন্তু কোথায় সেই সুবিধা নিতে পারেননি ইমরান।

অন্যদিকে, যে কোনো পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের পাশে থাকা চিনও অবশেষে ভারতের হাত ধরেছে।

২ দিনের ভারত সফরে এসেছেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। ফলে স্নায়ু উত্তেজনা বাড়ছে ইমরান খানের।

এই পরিস্থিতিতেও আক্রমণ করা ছাড়া আর কোনো উপায় দেখছে না পাকিস্তান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here